04/10/2022 : 12:33 AM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানবর্ধমান

বর্ধমানে প্রি-কোভিড হাসপাতালে বিক্ষোভ স্বাস্থ‍্যকর্মীদের

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ যেখানে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনা যুদ্ধের প্রথম সারির সৈনিকদের সম্মান ও নিরাপত্তার কথা বার বার বলছেন সেখানে দেশজুড়ে করোনা যোদ্ধা স্বাস্থ্যকর্মীরা আজও অবহেলিত। করোনার ঝুঁকি নিয়ে যারা প্রতিনিয়ত মানুষের সেবা করে চলেছে আজ তারাই পাচ্ছে নুন্যতম বেতন ও ভুগছেন নিরাপত্তাহীনতায়।

বেতন ও নিরাপত্তার দাবীতে বর্ধমানের বেসরকারি প্রি কোভিড হাসপাতালের নার্সিং স্টাফ ও এ্যাটেনডেন্ট মিলিয়ে প্রায় ১০০জন স্বাস্থ্য কর্মী আজ বিক্ষোভ দেখায়। স্বাস্থকর্মীদের দাবি, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসন প্রতিশ্রুতিই রাখেননি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কাজ শুরুর আগে তাদের বলেছিলেন সরকারি হারে বেতন দেওয়া হবে। যেহেতু উক্ত হাসপাতালে করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিকিৎসা হয় এবং এখান থেকে করোনা পজিটিভ রোগীও সনাক্ত করা হয়েছে তাই স্বাস্থ্যকর্মীদের বলা হয়েছিল সাতদিন কাজ করার পর, পরের সাতদিন তারা হোম কোয়ারিন্টনে থাকবেন। কিন্তু কোন প্রতিশ্রুতিই দু’মাস ধরে মানা হয় নি। শুধুমাত্র উক্ত বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁদের ৩০০০ টাকা মাসে বেতন দিচ্ছে। কিন্তু সরকার কোন বেতন দেয় নি দু মাস ধরে।

বিক্ষোভরত এক স্বাস্থ্য কর্মী জানানা যে, নূন্যতম কোন নিরাপত্তাও এখানকার স্বাস্থ্যকর্মীদের নেই। তাদের আরো অভিযোগ একটা সাবানকে কেটে আধখানা করে দেওয়া হচ্ছে এবং বলা হচ্ছে এটাই একমাস চালাতে হবে। এছাড়াও টানা ২৬ দিন কাজ করতে হবে মাঝে কোন ছুটি দেওয়া হবে না। করোনার জন্য যে পিপিই পড়ে কাজ করতে হচ্ছে তা থেকে তারা ঘর্মাক্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।

সূত্রানুসারে জানা যায় যে, বিক্ষোভকারী স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে ১৫ – ১৬ জন ত্রিপুরার বাসিন্দা। তারা বলেন সেবা করার জন্যই তারা নিবেদিত প্রাণ কিন্তু সরকার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে প্রদও প্রতিশ্রুতি তো মানতে হবে।

গত এক সপ্তাহে ভিন রাজ্য থেকে একের পর এক শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ঢোকায় হঠাৎই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়তে থাকে। চাপ পড়ে দুর্গাপুরের বেসরকারি কোভিড হাসপাতালে। তাই চাপ কমাতেই তড়িঘড়ি জেলা প্রশাসন সিদ্ধান্ত নেয় জেলার প্রি কোভিড হাসপাতালকে সম্পূর্ণ কোভিড হাসপাতালে পরিণত করা হবে। দুদিন আগেই পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী বলেন, বর্ধমান ২ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে বামচাঁন্দাইপুরে বেসরকারি প্রি কোভিড হাসপাতালকে পুরোপুরি কোভিড হাসপাতালে উন্নীত করা হয়েছে। এখন থেকে ওখানেই করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হবে।

প্রি-কোভিড হাসপাতালের স্বাস্থ‍্যকর্মীদের বিক্ষোভের বিষয়ে জেলাশাসক বিজয় ভারতী টেলিফোনে বলেন আলোচনা করে বিষয়টি দেখা হবে।


Advt

Related posts

ভালোবাসার দিনে পথবাসীদের পাশে শিক্ষক

E Zero Point

রক্তের স্রোতাধার নবগ্ৰাম ময়নাতে

E Zero Point

রেড ভলেন্টিয়ারদের উদ্যোগে রক্তদান শিবির মেমারিতে

E Zero Point

মতামত দিন