30/11/2022 : 7:15 AM
BREAKING NEWS
অন্যান্যঅবসরআমার দেশআমার বাংলাই-জিরো পয়েন্টই-ম্যাগাজিনইভেন্টউত্তর বঙ্গকলকাতাকৃষি-পরিবেশকৃষ্টিখেলাছোটদের জগৎজীবন শৈলীটলি-বলি-কলি-হলিটেলিকথাট্রেন্ডিং নিউজদক্ষিণ বঙ্গধর্ম -আধ্যাত্মিকতাপাঠকের কলমপ্রকাশনপ্রতিযোগিতাপ্রবাসীপ্রবাসী বাঙালিবাংলাদেশবিজ্ঞান-প্রযুক্তিবিদেশবিনোদনব্যবসা বণিজ্যভ্রমণরঙ্গমঞ্চরবিবারের আড্ডারাজনৈতিকরান্নাঘরশিক্ষাশিল্প ও নৈপুণ্যসম্পাদকীয়সাজঘরসাহিত্যস্বাস্থ্য

থাইরয়েডে থেকে মুক্তি পাওয়ার প্রাকৃতিক উপায়

থাইরয়েড হল গলায় অবস্থিত একটি প্রজাপতি-আকৃতির গ্রন্থি, যা বেশ কয়েকটি হরমোন উৎপন্ন করে এবং এটি আমাদের বিপাক ক্রিয়া, চুলের বৃদ্ধি, ঋতুস্রাব এবং শক্তি স্তরের উপর প্রভাব ফেলে। যখন থাইরয়েড হরমোনগুলির অস্বাভাবিক উৎপাদন হয়, তখন থাইরয়েড সমস্যা দেখা দেয়। দুই ধরনের থাইরয়েড ব্যাধি আছে – হাইপারথাইরয়েডিজম এবং হাইপোথাইরয়েডিজম। থাইরয়েড গ্রন্থি যখন অতিরিক্ত হরমোন তৈরি করে তখন তাকে হাইপারথাইরয়েডিজম বলা হয় এবং থাইরয়েড গ্রন্থি যখন পর্যাপ্ত থাইরয়েড হরমোন তৈরি করে না তখন হাইপোথাইরয়েডিজম হয়। থাইরয়েডের সমস্যাগুলি বেশিরভাগ স্ট্রেস, ডায়েটে সমস্যা বা অনুশীলনের অভাবে দেখা দেয়। সুতরাং, থাইরয়েড সমস্যাগুলি প্রাকৃতিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এখানে কয়েকটি কার্যকর উপায় দেওয়া হল –

১) স্বাস্থ্যকর ডায়েট

একটি সুষম ডায়েট, যেমন – অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ সতেজ ফল এবং শাকসবজি, কম ফ্যাটযুক্ত দুগ্ধজাত পণ্যগুলি থাইরয়েডের সমস্যাগুলি নিয়ণ্ত্রণে বা প্রতিরোধে সহায়তা করতে পারে। ভিটামিন বি-১২ সমৃদ্ধ খাবার যেমন মটর, অ্যাসপারগাস, তিল, ডিম, দুধ এবং পনির গ্রহণ থাইরয়েড গ্রন্থিকে সঠিকভাবে কাজ করতে সহায়তা করে।

২) আপনার চিনির গ্রহণ সীমিত করুন

আপনার যদি থাইরয়েড রোগ থাকে তবে অতিরিক্ত চিনি গ্রহণ ক্ষতিকারক কারণ এটি শরীরে বাড়তি প্রদাহ পরিচালিত করে। থাইরয়েড T3 এবং T4 এই দুটি হরমোন উৎপন্ন করে। প্রদাহ বৃদ্ধি T4 হরমোনকে T3 হরমোন রূপান্তরকে ধীর করতে পারে এবং এটি থাইরয়েড রোগের লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ করতে পারে।

৩) প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার খান

হাইপোথাইরয়েডিজমের কারণে অনেকগুলি গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল লক্ষণ দেখা দেয়। সুতরাং, দই, পনির, ইত্যাদি জাতীয় প্রোবায়োটিক খাবারগুলি পেট এবং অন্ত্র সুস্থ রাখতে সহায়তা করতে পারে।

৪)সেলেনিয়াম সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করুন

সেলেনিয়াম একটি গুরুত্বপূর্ণ খনিজ যা, থাইরয়েড হরমোন বিপাকের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং দেখা গেছে, এটি থাইরক্সিন বা T4 হরমোনের ভারসাম্য রক্ষায় সহায়তা করে। টার্কি, ব্রাজিল নাটস্, ইত্যাদির মতো সেলেনিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খান।

৫) আয়োডিন সমৃদ্ধ খাবার খান

আয়োডিন হল থাইরয়েড হরমোন তৈরিতে থাইরয়েড গ্রন্থি দ্বারা ব্যবহৃত আরও একটি অপরিহার্য খনিজ যা, দেহের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কার্য নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে। যখন দেহে পর্যাপ্ত আয়োডিন না থাকে, তখন এটি পর্যাপ্ত থাইরয়েড হরমোন তৈরি করতে পারে না, যা হাইপোথাইরয়েডিজমের দিকে পরিচালিত করে। তাই, চিংড়ি, ঝিনুক, দই এবং পনির জাতীয় আয়োডিন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করুন।

৬) আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খান

থাইরয়েড হরমোন বিপাকের জন্য আয়রন একটি প্রয়োজনীয় খনিজ। আয়রনের ঘাটতি থাইরয়েড হরমোনের সংশ্লেষণকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে যা, থাইরয়েডের সমস্যাগুলির দিকে পরিচালিত করে।

৭) মানসিক চাপ কমাতে

দীর্ঘস্থায়ী চাপ থাইরয়েড হরমোনের কর্মহীনতার দিকে চালিত করে এবং কারুর যদি আগে থেকেই থাইরয়েড থাকে তবে, এটি থাইরয়েডের লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ দিকে নিয়ে যেতে পারে। সুতরাং, মানসিক চাপ এড়ানোর জন্য শরীরচর্চা করুন।

৮) যোগা এবং ধ্যান করুন

যোগ ব্যায়াম এবং ধ্যান থাইরয়েড গ্রন্থিতে রক্ত প্রবাহকে উন্নত করার পাশাপাশি একই সাথে মন এবং শরীরকে রিল্যাক্স করে থাইরয়েড ব্যাধি পরিচালনা করতে সহায়তা করতে পারে।

Related posts

মেমারিতে পথদুর্ঘটনায় সদ্যবিবাহিত যুবকের মৃত্যু

E Zero Point

এবিভিপির ডেপুটেশনকে কেন্দ্র করে উত্তাল গোবরডাঙ্গা হিন্দু কলেজ

E Zero Point

নিশ্চিন্তে, নির্ভয়ে ভোটদানঃ গ্রামে গ্রামে রুটমার্চ কেন্দ্রীয় বাহিনীর

E Zero Point

মতামত দিন