28/11/2022 : 4:59 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানবর্ধমান

বর্ধমান শহরে যুবক খুনের ঘটনায় গ্রেফতার হল দু’জন

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ বর্ধমান শহরে যুবক খুনের ঘটনায় গ্রেফতার হল দু’জন। শুক্রবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে তোলা হয়।
গত বুধবার শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে মৃত্যু হয় গৌতম দাস নামে এক যুবকের। সন্ধ্যায় ঝামেলা শুরু হয় শহরের লক্ষ্মীপুর মাঠ এলাকায়। ধৃত বিনোদ সাউ ও উদিত দাসের বাড়ি লক্ষীপুরমাঠ এলাকায়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য গৌতম দাসের মৃত্যুর পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। উত্তেজিত জনতা স্থানীয় তৃণমূল নেতা বিকাশ মণ্ডলের বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে ডিএসপি (হেড কোয়ার্টার) শৌভিক পাত্র ও বর্ধমান থানার আইসি পিন্টু সাহা বিশাল পুলিস বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। মৃত গৌতম দাসের বাড়ি লক্ষ্মীপুর মাঠ এলাকার বাদশাহী রোডের শর্মাপাড়ায় । বেশ কিছুদিন ধরে লক্ষ্মীপুর মাঠ এলাকায় শাসক দলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বিরোধ চলছিল। এলাকার কর্তৃত্ব কোন গোষ্ঠীর হাতে থাকবে তা নিয়েই মূলত ঝামেলা । বুধবার বিকালে বাইকে ধাক্কা মারাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে বচসা বাধে। পরে মারপিট বেধে যায়। মারধরে গৌতম গুরুতর জখম হন। তাঁর কপালে ও চোখের পাশে আঘাত লাগে। তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপরই উত্তেজিত জনতা বিকাশের বাড়িতে ভাঙচুর চালায়।

অন্যদিকে নিহত গৌতম দাসের দাদা আনন্দ দাস বৃহস্পতিবার বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে দাঁড়িয়ে দাবি করেন, ‘‘ভাই কোনও রাজনীতি করত না। পড়াশোনো করত। ভিডিয়োগ্রাফি করে নিজের পড়াশোনা আর সংসারের খরচ জোগাত। সাতেপাঁচে না থাকা একটি ছেলে কেন মারা হল, বুঝতে পারছি না!’’ পুলিশকেও তাঁরা এ কথা জানিয়েছেন বলে দাবি তাঁর।

Related posts

অভিমান ভুলে আবার তৃণমূলে

E Zero Point

২০২১-এ সোনার বাংলা গড়বোঃ বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল

E Zero Point

হুগলি জেলা কৃষক খেতমজুর প্রস্তুতি সভা হরিপালে

E Zero Point

মতামত দিন