09/07/2020 : 11:55 PM
BREAKING NEWS
দক্ষিণ বঙ্গ পূর্ব বর্ধমান বর্ধমান মেমারি

মেমারিতে নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার এক টোটো চালক

নূর আহামেদঃ মেমারি শহর কি দিন দিন অপরাধের কেন্দ্রে পরিণত হচ্ছে? কিছু দিন আগে মেমারি ষ্টেশনে ঘৃণ্য লালসার শিকার হয়েছিলেন ৭৫ বছরের বৃদ্ধা। আর এবার ৫৬ বছরের কাপুরুষের লালসার শিকার হল এক ১০ বছরের বালিকা।

ঘটনায় প্রকাশ গত ২৭ জুন শনিবার রাত ৮ টা নাগাদ মেমারি পৌরসভার ইছাপুর-ঝাপানতলা এলাকায় বসবাসকারী পঞ্চমশ্রেণীর ছাত্রীকে তার বাবা ফোন করে জানায় যে, “তোর জন্য খাবার নিয়ে যাচ্ছি, দরজা খুলে বাড়ীর বাইরে একটু দাঁড়া।” মা রান্নার কাজে ব্যস্ত ছিলেন, ছাত্রীটি বাবার ফোনের কথা মতো বাইরে রাস্তায় দাঁড়িয়েছিল। এমন সময় পরিচিত এক টোটো চালক ছাত্রীটিকে বলে, চল তোর বাবাকে খুঁজে আনি এবং তাকে টোটোতে চাপিয়ে কিছু দূরে রাস্তার ধারে একটি ঝোঁপের আড়ালে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। নাবালিকা ছাত্রী ভয় পেয়ে চিৎকার করতে শুরু করলে আশেপাশের মানুষজন বেড়িয়ে এসে টোটো চালকে ধরে মারধর করে এবং ছাত্রীটিকে বাড়ীতে বাবা-মায়ের কাছে নিয়ে যায়। এরপর টোটো চালককে মেমারি থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। ছাত্রীর বাবার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে টোটো চালককে গ্রেপ্তার করা হয়।

মেমারি থানা সূত্রে জানা যায় যে, ধৃত টোটো চালকের নাম সেখ আলাউদ্দিন। বয়স ৫৬ বছর। বাড়ি মেমারি থানার বিজরা গ্রামে।  নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা রুজু করে আজ তাকে বর্ধমান আদালতে পাঠানো হয়।

এই ঘটনায় মেমারি শহরে ব্যপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। লকডাউন পর্যায় শেষ হওয়ার সাথে সাথে আনলক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ধীরে ধীরে মানুষ স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে। লকডাউন চলাকালীন মেমারিতে টোটো চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল। এখন নিয়মনীতি মেনে টোটো চললেও এই ঘৃণ্য ঘটনায় যেসব ছাত্রীরা টোটো করে স্কুল বা প্রাইভেট টিউশনে যায় সেইসব অভিভাবক মহলের মনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

মেমারিতে নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার এক টোটো চালক****বিস্তারিত সংবাদটি পড়ার জন্য নিচের লিঙ্কটি ক্লিক করুনhttps://ezeropoint.net/news/461806

Posted by Zero Point- জিরো পয়েন্ট on Sunday, June 28, 2020

এই প্রসঙ্গে মেমারি পৌরসভার টোটো  ইউনিয়নের সেক্রেটারী সেখ নাসিরুদ্দিন (বাপন) জানান যে, এই ঘৃণ্য ঘটনার খবর পাওয়ার সাথে সাথেই তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান। অভিযুক্ত সেখ আলাউদ্দিন বিজরা থেকে মেমারি ঝাপানতলা পর্যন্ত যাত্রী নিয়ে আসে, মেমারি টোটো ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত টোটো চালক নন তবুও উক্ত টোটো চালককে মেমারি শহরে ভবিষ্যতে টোটো চালাতে দেওয়া হবে না বলে তিনি জানান। এছাড়াও তিনি মেমারিবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেন, মেমারি শহরের যেসব টোটো চালক আছে তাদের প্রত্যেকের টোটো নাম্বার দেওয়া আছে এবং মেমারিবাসী নির্ভয়ে তাদের বাচ্চাদের টোটো করে প্রাইভেট টি্উশনে পাঠাতে পারেন। মেমারি পৌরসভার টোটো  ইউনিয়নের পক্ষ থেকে প্রশাসনের কাছে অভিযুক্ত ব্যক্তির চরম শাস্তির দাবী করা হয়েছে।

Related posts

ভাতারের মুরাতিপুরে বালি বোঝাই ডাম্পার উল্টে গিয়ে বিপত্তি

E Zero Point

বড়পলাশন গ্রামের ৩৫০ পরিযায়ী শ্রমিকের বিক্ষোভ মেমারিতে

E Zero Point

জনগণের জন্য বিনামূল্যে ২০০০ মাস্ক প্রদান বর্ধমান সদর থানায়

E Zero Point

মতামত দিন