30/01/2023 : 8:05 PM
আমার দেশ

অহিংসা – গান্ধী : গান্ধীর অহিংসার বাণীর মাধ্যমে ক্ষমতাহীনের ক্ষমতা সারা বিশ্ব জুড়ে প্রভাবিত : পরিচালক রমেশ শর্মা

জিরো পয়েন্ট নিউজ ডেস্ক, দিল্লী, ২২ জানুয়ারি ২০২১:


৫১তম ভারত চলচ্চিত্র উৎসব (ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ ইন্ডিয়া- আইএফএফআই) ভারতীয় প্যানোরমা অকাহিনীচিত্র বিভাগে ‘অহিংসা-গান্ধী : দ্য পাওয়ার অফ দ্য পাওয়ারলেস’ প্রদর্শিত হয়েছে। অহিংসার শক্তি আজকের দিনেও প্রাসঙ্গিক। এই ছবির মাধ্যমে গান্ধীজীর অহিংসার বার্তা কিভাবে বিশ্বের  নেতৃবৃন্দকে অনুপ্রাণিত করেছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার আন্দোলনকে প্রভাবিত করেছে, পোল্যান্ডে সমভাবাপন্ন আন্দোলনকে চালিত করেছে এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় লেনসন ম্যান্ডেলা ও বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী সংগ্রাম কিভাবে প্রভাবিত হয়েছে – সে বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। মহাত্মা গান্ধীর ১৫০তম জন্মদিনে এই চলচ্চিত্রের পরিচালক রমেশ শর্মা মহাত্মা গান্ধীকে শ্রদ্ধা জানাতে  ছবিটি তৈরি করেছিলেন। গোয়ায় ইফি-তে একটি ভার্চ্যুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে আজ তিনি বক্তব্য রেখেছেন।

অহিংসা – গান্ধী-কে একটি ফিল্মের বদলে ভাবনা বলতে পরিচালক স্বচ্ছন্দ্যবোধ করেন। তিনি বলেছেন, মানবাধিকার এবং মানুষের মর্যাদা আন্তর্জাতিক স্তরে রক্ষা করার প্রয়োজন এসেছে। গান্ধীজীর বাণী ভারতের সীমানা অতিক্রম করেছে। আজ অবিচারের বিরুদ্ধে সমাজ যখন লড়াই করে,  তখন এই বাণী অনুপ্রেরণার উৎস। শ্রী শর্মা বলেছেন, তরুণ সম্প্রদায়ের গান্ধীজীর বাণীকে আরও প্রচার করা উচিৎ। তিনি বলেছেন, আজ সমন্বয়ের বাতাবরণ ধ্বংস হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। মহাত্মা গান্ধী বিশ্বাস করতেন, প্রতিটি ধর্মের নিজস্ব স্থান রয়েছে। গান্ধীজী কখনই দেশে একটি মাত্র ধর্ম থাকুক – তা চাননি।

এই ছবির সম্পাদক যামিনী উপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, এ ধরনের ছবিতে কাজ করা এক দারুণ অভিজ্ঞতা। তিনি এই ছবিতে কাজ করার সময় গান্ধীজী সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। এই ছবির মধ্য দিয়ে তাঁরা প্রত্যেক মানুষকে অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করেছেন।

অহিংসা-গান্ধী : দ্য পাওয়ার অফ দ্য পাওয়ারলেস

মহাত্মা গান্ধীর জন্মের সার্ধশতবর্ষ উপলক্ষে এই ছবিটি তৈরি করা হয়েছে। এটি এক সময় নির্মাণ করা হল, যখন মিনেসোটায় পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের নিহত হওয়ার পর একটি আন্দোলন সংগঠিত হয়।

রমেশ শর্মা এর আগে ‘দ্য জার্নালিস্ট অ্যান্ড দ্য জিহাদী : দ্য মার্ডার অফ ড্যানিয়েল পার্ল’ ছবিটির জন্য এমি পুরস্কারে মনোনীত হয়েছিলেন।  যাঁরা ক্ষমতায় রয়েছেন, তাঁদের নিরীহ মানুষের স্বাধীনতা খর্ব করার বিরুদ্ধে তিনি এই ছবির মাধ্যমে বার্তা দিয়েছেন।

Related posts

কৃষকদের আয় বৃদ্ধি এবং কৃষির আমূল পরিবর্তনে লোকসভায় আজ পেশ হল তিনটি বিল

E Zero Point

ভারত-মার্কিন প্রতিরক্ষা প্রতিনিধিদের ভার্চ্যুয়াল বৈঠক

E Zero Point

করোনা থেকে আরোগ্য লাভের হার ৮৩ শতাংশ

E Zero Point

মতামত দিন