04/10/2022 : 8:34 PM
BREAKING NEWS
আমার দেশ

বিরল রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য স্বতঃস্ফূর্ত গণ-তহবিল এবং যক্ষ্মা নির্মূলের বিষয় নিয়ে ডাঃ হর্ষ বর্ধনের পৌরহিত্যে কর্পোরেট জগতের সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক

জিরো পয়েন্ট নিউজ ডেস্ক, দিল্লী, ১৭ জুন ২০২১:


বিরল রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য স্বতঃস্ফূর্ত গণ-তহবিল এবং যক্ষ্মা নির্মূলের বিষয়ে আজ বাণিজ্যিক কর্পোরেট জগতের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি এবং রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন ভার্চুয়াল মাধ্যমে বৈঠক করেছেন। বৈঠকের শুরুতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান সভ্যতার বিকাশের জন্য বেসরকারী কর্পোরেট ক্ষেত্রে বৃহত্তর অংশীদারিত্ব প্রয়োজন।

কোভিড-১৯ অতিমারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ের মোকাবিলায় কর্পোরেট ক্ষেত্র এবং বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ব সংস্থা যেভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তারজন্য কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি। দেশে বিরল রোগে ভুগছেন এমন রোগীদের চিকিৎসা এবং সাহায্যের জন্য কর্পোরেট ও রাষ্ট্রায়ত্ব সংস্থাগুলির সিএসআর তহবিল থেকে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানান তিনি। ডাঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ৮ শতাংশ মানুষ বিরল রোগে ভোগেন। এরমধ্যে চিকিৎসার মাধ্যমে সেরে ওঠা ৭৫ শতাংশই হল শিশু। তাদের পিতা-মাতা এই চিকিৎসার খরচ বহন করতে করতে নিঃস্ব হয়ে যান। এই পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রায়ত্ব ও কর্পোরেট সংস্থাগুলি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে পারে।

তিনি বলেন, বিরল রোগের চিকিৎসা ক্ষেত্রে গবেষণার সুবিধার্থে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এমনকি বিরল রোগের চিকিৎসার জন্য একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছে। নোডাল আধিকারিক নিয়োগ করা হলেছে বলেও তিনি জানান। স্বাস্থ্য মন্ত্রী আরও বলেন, বিরল রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত নির্দিষ্ট ওষুধ আমদানির ক্ষেত্রে শুল্ক হ্রাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এই ধরণের রোগের চিকিৎসার জন্য গণ তহবিল গঠনে জাতীয় ডিজিটাল পোর্টাল গড়ে তোলা হয়েছে।

কোনো ব্যক্তি বা সমাজের যেকোন ক্ষেত্রের মানুষ, কর্পোরেট সংস্থা এখানে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অর্থদান করতে পারে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, যক্ষ্মা রোগের চিকিৎসা এবং যথাযথ পর্যবেক্ষণের জন্য অত্যাধুনিক সরঞ্জাম যেমন, এনএএটি, ডিজিটাল এক্স-রে’র ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী ২০২৫ সালের মধ্যে যক্ষ্মামুক্ত ভারত গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে মন্ত্রক একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এদিনের বৈঠকে বিভিন্ন কর্পোরেট, শিল্পসংস্থার প্রতিনিধি, স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সচিব শ্রী রাজেশ ভূষণ সহ বণিকসভা সিআইআই, ফিকি, অ্যাসোচেম-এর প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

Related posts

সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি

E Zero Point

বিশ্বজুড়ে স্তব্ধ ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম! বিপাকে নেটিজেনরা

E Zero Point

এবার দ্রুত বাংলাদেশে পণ্য বোঝাই ট্রাক পাঠানো সম্ভব

E Zero Point

মতামত দিন