04/02/2023 : 1:46 AM
আমার বাংলাউত্তর বঙ্গমালদহ

সারা দেশে ১৫ অগাষ্ট হলেও, মালদায় ১৮ অগাষ্ট স্বাধীনতা দিবস পালন হলো

জিরো পয়েন্ট নিউজ – সুমিত ঘোষ, মালদা, ১৮ অগাষ্ট ২০২১:


১৯৪৭ সালের ১৫ অগাস্ট, এই দিনটিতেই ভারতবর্ষ স্বাধীনতা লাভ করে। এ বছর তা ৭৫ তম বর্ষ হিসেবে পালিত হতে চলেছে। ঠিক এই দিনটিতেই প্রত্যেক বছর সারাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালিত হয় স্বাধীনতা দিবস।

আপনি কি জানেন অন্যদিকে দেশের কিছু জেলার সীমান্তবর্তী গ্রামের মানুষেরা অপেক্ষা করে থাকেন ১৮ আগস্টের জন্য ? ১৯৪৭ সালের ১৫ অগাস্ট-র ঠিক দু দিন পর অর্থাৎ ১৮ অগাস্ট দিনটি হল তাদের কাছে স্বাধীনতা দিবস। কিন্তু কেন এমনটা, তা স্বাভাবিকভাবেই অজানা অনেকের কাছে। ভারতবর্ষের প্রত্যেকটা মানুষ যখন ১৫ অগাস্ট স্বাধীনতা দিবস পালন করছে ঠিক তার পরও এই সমস্ত এলাকার মানুষ দু দিন কেন অপেক্ষা করেন?

এমনকি ১৯৪৭ সালের ১৫ অগাস্ট স্বাধীন ভারতের পতাকা ওঠেনি মালদা, মুর্শিদাবাদ ও নদিয়া জেলার একাংশে। তার আগের দিন অর্থাৎ ১৪ অগাস্ট স্বাধীন হয়েছিল পাকিস্তান। আর পাকিস্তানের পতাকা উড়েছিল এই জায়গাগুলিতে। পরে ১৮ অগাস্ট ওই জায়গাগুলিতেও স্বাধীন ভারতের পতাকা ওড়ে। তাই আজও কোনও কোনও জায়গায় ১৮ অগাস্ট স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়।

ইতিহাস থেকে জানা যায় তৎকালীন পরাধীন ভারতের ভাইসরয় লুইস মাউন্টব্যাটেন ১৯৪৭ সালের ১২ অগাস্ট ঘোষণা করেছিলেন ভারতবর্ষকে ১৫ অগাস্ট স্বাধীনতা দেওয়া হবে। সেই দিনটি ভারতবর্ষের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালিত হবে। তৎকালীন ব্রিটিশ আধিকারিক সাইরিন রেডক্লিফ যিনি ভারতের মানচিত্রকে বিশেষ মর্যাদার সঙ্গে তৈরি করেছিলেন তাতে তথাকথিত বাংলা থেকে গিয়েছিল খানিকটা বিতর্কিত অবস্থায়। বিশেষত বাংলার যে ভাগ করা হয়েছিল। তার মধ্যে বাংলার কিছু জেলা যেমন মালদা, নদিয়া সহ উত্তর ২৪ পরগনার হিন্দু জনসংখ্যা অধ্যুষিত এলাকা তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান বা বর্তমান বাংলাদেশে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। স্বভাবতই এর ফলে কিছুটা বিরোধিতার মুখে পড়তে হয় ব্রিটিশ শাসকদের।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এই বিরোধিতা এতটাই চরম পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছোয় যে, শেষমেষ দ্বিতীয় বার মাউন্টব্যাটেন নতুন করে মানচিত্র তৈরি করার পরামর্শ দেন। স্থানীয়দের মতে, সম্পূর্ণ বিষয়টি সম্পন্ন হয় ১৭ অগাস্ট রাতে। ফলে তাদের কাছে ভারতবর্ষের স্বাধীনতা পাওয়ার খবর ১৮ অগাস্ট এসে পৌঁছয়। সেই দিন ওই সমস্ত এলাকায় পালিত হয় স্বাধীনতা দিবস। স্বাধীনতার ৭৫ বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পর আজও সেই ধারা বজায় রেখে বুধবার সকালে মালদা শহরের রামকৃষ্ণ মিশন ঘাট এলাকায় উদযাপন করা হয় মালদার স্বাধীনতা দিবস।

জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী, ইংরেজ বাজার পৌরসভার প্রশাসক সুমালা আগারওয়ালা সহ অন্যান্য অতিথিরা। পতাকা উত্তোলনের পাশাপাশি প্রয়াত স্বাধীনতা সংগ্রামী শিবেন্দু শেখর রায়ের আবক্ষ মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

Related posts

কবিগুরুর প্রয়াণদিবসে রক্তদান শিবির

E Zero Point

মোবাইলে প্রেম, বিবাহিত প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা হাজির

E Zero Point

৬০ বছর পর্যন্ত চাকরি নিশ্চিত করার দাবী সিভিল ডিফেন্স ভলেন্টিয়ারদের

E Zero Point

মতামত দিন