22/02/2024 : 3:48 PM
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানবর্ধমান

সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ’ কর্মসূচি: পথ-সচেতনায় পথে পুলিশ প্রশাসন

জিরো পয়েন্ট নিউজ – কল্যাণ দত্ত, বর্ধমান, ৫ ডিসেম্বর ২০২১:


কথায় আছে, ‘সাবধানের মার নেই’, কিংবা, ‘যে সয় সে রয়। অর্থাৎ বহুদিন জীবনপথ অতিক্রম করতে হলে পথ পরিক্রমাটাও সাবধানে ও যথাযথভাবে করা উচিত। পথ যে সাবধানে চলে সেই পথের প্রান্তে পৌঁছতে পারে। কিন্তু এই যান্ত্রিক, বস্তুবাদী জীবনে সেই বােধ ও নৈতিকতার বড়ই অভাব। তাই পথ চলতে চলতে পথেই হারিয়ে যায় জীবন। যে জীবন মহার্ঘ তাকে এত অবহেলা করা হয় পথের মধ্যেই তাতে যতই প্রচার করা হোক পুলিশ প্রশাসনের তরফে ।


ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে একটি অভিযান পথ নিরাপত্তাকে ও দুর্ঘটনার প্রকৃতিকে কমিয়ে দিতে পেরেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের সর্বত্র একটি স্লোগান বাস্তবায়িত করার জন্য প্রচার করেছেন—“সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ ’এর কর্মসূচী । পথ নিরাপত্তা সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট মানুষদের অবহিত করতে, সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের কাজে লাগিয়ে যে কর্মসূচি ২০১৬ সালে গ্রহণ করেছেন, তা অবশ্যই প্রশংসনীয়। পথ নিরাপত্তা আমাদের জীবনে এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কেননা এই পথের ধারেই রয়েছে স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল, বাজার, অফিস আদালত এবং আরাও কত কি। এমনকি ঐসব প্রতিষ্ঠানে পৌঁছতে পথকেই মাধ্যম করতে হয় প্রতিদিনের জীবন ধারণের জন্য ও জীবিকার জন্য।

তাই যথাযথভাবে গাড়ি, মােটরবাইক প্রভৃতি চালানাে পথ নিরাপত্তার ক্ষেত্রে গুরুত্ব- পূর্ণ। কারণ বহু মানুষ এই অসাবধানতার কারণে পথেই জীবন হারায়।
তাই যারা গাড়ি চালান তারা যদি কোনরকম ঝুঁকি না নিয়ে যত্নের সঙ্গে যথাযথভাবে গাড়ি চালান তাহলে অনেক জীবনহানি থেকে রেহাই পাওয়া যায়।
গাড়িচালকদের মানসিকভাবে তাদের স্বভাবধর্মের পরিবর্তন সাধনের জন্য মুখ্যমন্ত্রী সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ নামক কর্মসূচিকে রাজ্যে সরকার প্রচারের ব্যবস্থা করেছেন।সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ রাজ্য সরকারের একটি অন্যতম কর্মসূচি। এই পরিকল্পনায় জনসাধারণকে সচেতন করাই মূল লক্ষ্য । রাজ্য ও রাস্তা আমাদের সকলেরই জীবনে একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। দৈনিক জীবনে স্কুল, অফিস, বাজার অথবা অন্যান্য কারনে যাতায়াতের জন্য রাস্তা ব্যবহার করতে হয়। প্রত্যেকটি মানুষের জীবন জড়িয়ে রয়েছে এর মধ্যে । সড়ক নিরাপত্তার একটি অপরিহার্য অংশ হল সেফ ড্রাইভ। তাই এক্সিডেন্ট এর প্রভাব এড়াতে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ প্রচার অভিযানের মাধ্যমে মানুষের জীবনের গুরুত্ব বোঝানোর প্রয়াস হল সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ ।

রবিবার পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ এবং সেহারাবাজার ট্রাফিক গার্ড এর পক্ষ থেকে পথ নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফের প্রচার করা হল। খণ্ডঘোষ ব্লকের সগড়াই বাজার থেকে বাঁকুড়া মোড় পর্যন্ত সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচি পালন করা হয়। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্যোগ নেওয়ার পর থেকেই পথ-নিরাপত্তায় বাড়তি গুরুত্ব দেয় রাজ্য পুলিশ সহ সমস্ত জেলার পুলিশ প্রশাসন । তাতে ফল মেলে খুবই পজেটিভ । রবিবার যেসব বাইক চালকরা হেলমেট বিহীন অবস্থায় বাইক চালিয়ে যাতায়াত করছিলেন এবং সিটবেল্ট না পরে গাড়ি চালাচ্ছেন এমন ব্যক্তিদের সচেতন করা হয় রবিবারের সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচি থেকে। ট্রাফিক আইন মেনে চললে কি লাভ কিংবা ট্রাফিক আইন লংঘন করলে কি সমস্যা হতে পারে সেই নিয়ে সাধারণ মানুষকে বোঝানো হয় সেহারাবাজার ট্রাফিক ওসির তরফে । রবিবারের উক্ত কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সিআই(সি) রজত কান্তি পাল, ট্রাফিক ওসি প্রদীপ পাল, রায়না থানার ওসি পুলক মন্ডল, সেহারাবাজার ফাঁড়ির আইসি রাজেশ মাহাতো , খণ্ডঘোষ থানার সেকেন্ড অফিসার সহ সিভিক ভলেন্টিয়ার ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গরা।


Related posts

স্বামী বিবেকানন্দ সেবা সংঘ-এর পক্ষ থেকে দুঃস্থ কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা জ্ঞাপন

E Zero Point

জেলায় বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, বর্ধমানে ১৪, মেমারিতে ৫

E Zero Point

সাইকেল চালিয়ে প্রজাপতি

E Zero Point

মতামত দিন