05/03/2024 : 8:20 AM
অন্যান্য

তেলিনিপাড়া গোষ্ঠী সংঘর্ষঃ হুগলির ১১টি থানায় নেট ও কেবল পরিষেবা বন্ধ

বিশেষ সংবাদঃ গত শনিবার ও রবিবার রাতে হুগলী জেলার তেলিনিপাড়াতে অশান্তময় পরিবেশ সৃষ্টি হয়। অসামাজিক কার্যে লিপ্ত দুষ্কৃতিরা তান্ডব চালায় এবং গত মঙ্গলবার সকালে ভদ্রেশ্বরের তাঁতিপাড়া, সেগুনবাগান, তেলেনিপাড়া এলাকা জুড়ে বিক্ষিপ্ত অশান্তি ও হিংসার ঘটনা ঘটেছে।

সোশাল মিডিয়ায়  গোষ্ঠী সংঘর্ষের ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হওয়ায়  গত কাল থেকে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয় । আগামী ১৭ মে পর্যন্ত চন্দননগর ও শ্রীরামপুর মহকুমার ১১টি থানা এলাকায় বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট, কেবল টিভির সংযোগ ও ডিশটিভি পরিষেবা। উত্তরপাড়া, রিষড়া, শ্রীরামপুর, চণ্ডীতলা জাঙ্গিপাড়া, ভদ্রেশ্বর, চন্দননগর, সিঙ্গুর, হরিপাল এবং তারকেশ্বর থানা এলাকা বন্ধ থাকবে এই সব পরিষেবা।

গতকাল হুগলির জেলাশাসক ওয়াই রত্নাকর রাও একটি নির্দেশিকা জারি করেন যে, ১২ মে থেকে ১৭ মে পর্যন্ত ইন্টারনেট শাট ডাউন থাকবে । অন্যান্য ইন্টারনেট কোম্পানি ও কেবলের নেটও বন্ধ করা হচ্ছে দুটি মহকুমা এলাকায় ।  নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কিছু সমাজবিরোধী ইন্টারনেটের মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছে।  হিংসা ও গুজব রুখতে এবং এলাকায় উত্তেজনা প্রশমিত করতে  হুগলির ১১টি থানা এলাকায় ইন্টারনেট বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

হিংসা ও গুজব রুখতে এবং এলাকায় উত্তেজনা প্রশমিত করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও শাসক ও বিরাধী নেতাদের মধ্যে রাজনৈতিক আরোপ-প্রত্যারোপ শুরু হয়ে গেছে।

কিন্তু ঘটনা হচ্ছে যেখানে করোনা নিয়ে দেশবাসী বাঁচার তাগিদে লড়াই করছে, সেই সময় সমাজ বিরোধীদের হিংসা ও অশান্তির কার্যকলাপকে কঠোর হাতে দমন করতে হবে শাসক ও প্রশাসনকে।

Related posts

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধের সেনাপতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

E Zero Point

মহারাষ্ট্রের পর বিহার, করোনায় প্রাণ গেল ৩৮ বছরের তরুণের, ভারতে মোট ৬ জন

E Zero Point

“৫০০ টাকা না তুললে, পরের মাসে টাকা পাওয়া যাবে না” – গুজবে আতঙ্কিত জনধন যোজনার গ্রাহকরা : লকডাউন ভেঙে মানুষের লম্বা লাইন

E Zero Point

মতামত দিন