25/02/2024 : 2:15 PM
অন্যান্য

জিরো পয়েন্টে খবর প্রকাশিত হবার পরই গুসকরায় প্রশাসনের নজরদারি

পরাগজ্যোতি ঘোষ, গুসকরাঃ গত ১১ মে জিরো পয়েন্ট পত্রিকায় গুসকরা লকডাউন বিষয়ে খবর প্রকাশিত হওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে গুসকরা পৌরসভা ও গুসকরা পুলিশ। গতকাল থেকে ব্যাপকভাবে শুরু হয়েছে পুলিশি নজরদারি। সাধারণ মানুষের মনে
লকডাউন এ দিনের বেলায় গা ঘেষাঘেষি করে চলা ভিড় যে ভীতির সঞ্চার করেছিল তা পুলিশি তৎপরতায় ব্যাপকভাবে স্থিতিশীল । মানুষের মনে পুলিশের প্রতি আশার সঞ্চার হয়েছে। যেভাবে কিছু মানুষ শুধুমাত্র অবসর কাটানোর আছিলায় যেখানে সেখানে ফালতু গল্প করছিল সেই সকল জায়গায় পুলিশ দারুণভাবে পরিস্থিতির মোকাবিলা করছে। এলাকার মানুষজন প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না। আর ব্যাঙ্কগুলির সামনেও গ্রাহকদের সারিবদ্ধ লাইন দেখা যাচ্ছে নিরাপত্তা বলয় এর মধ্যেই।

এছাড়াও উল্লেখযোগ্য ভাবে  আজ সকাল বেলা থেকেই গুসকরা পৌরসভা সমস্ত এলাকায় স্যানিটাইজ করেছে। এই উদ্যোগ এলাকাবাসীকে মুগ্ধ করেছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য পুলিশের ভূমিকা। আরেকবার প্রমাণ হলো পুলিশ চাইলে সবকিছুই সম্ভব। তবে জনগণের একাংশের মতামত পুলিশ সবসময়ই চায় কাজ করতে। প্রথমদিকে গুসকরায় যেভাবে পুলিশি তৎপরতা চলছিলো হঠাৎই কোন অজানা কারণে তা শিথিল হয়ে যায়। কিন্তু বর্তমানে যেভাবে পুলিশ তৎপর হয়ে উঠেছে তা করোনা পরিস্থিতিকে স্থিতিশীল করবে বলে মনে করছেন এলাকার সচেতন মানুষজনেরা। গুসকরার প্রাথমিক শিক্ষক প্রশান্ত মিত্র জানান জিরো পয়েন্ট পত্রিকায় প্রকাশিত করোনা পরিস্থিতি বিষয়ে খবরটি গুসকরার বিভিন্ন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে গুসকরা পুলিশ প্রশাসন। তিনি ধন্যবাদ জানান জিরো পয়েন্ট পত্রিকাকে।

আগের খবরঃ বজ্র আঁটুনি ফস্কা গেরো গুসকরার লক ডাউনে

 

Related posts

মঙ্গলকোটের জালপাড়ায় লকডাউনে অন্নসামগ্রী দান

E Zero Point

পুরপিতার উপস্থিতে তেন্ডুলকর একাদশের পক্ষ থেকে মেমারিতে খাদ‍্যসামগ্রী দান

E Zero Point

এই ঘর বন্দিতে সাবধান! ঘন ঘন কটন বাডস কানে দিলে হতে পারে বিপদ

E Zero Point

মতামত দিন