20/07/2024 : 12:55 AM
অন্যান্য

শুধু কি করোনাতেই মানুষ মারা যাবে ম্যালেরিয়া ডেঙ্গুতেও তো মরতে হবে

সম্পাদক সমীপেষু


আমরা মেমারি পৌরসভার ১১ নং ওয়ার্ডে বাসিন্দা এখানে বড় নিকাশী আছে যেখানে সবাই আবর্জনা ফেলে এবং এটি এক মাসেরও বেশি পরিষ্কার হয় নি। সত্যিই দুঃখের বিষয় যে কিছু লোকের সঠিক বর্জ্য নিষ্কাশন সম্পর্কিত নাগরিক ধারণা এখনও হয়ে ওঠে নি। এই প্রথমবার নয় যে অস্বচ্ছ জিনিসগুলি নিকাশী ব্যবস্থার ভিতরে ফেলে দেওয়া হয়েছে যা পুরো অঞ্চলটির জন্য সমস্যা সৃষ্টি করে এমন ড্রেনগুলি অবরুদ্ধ করে। নিকাশীটি কাসিয়ারা আদিবাসীপাড়া ক্রসিং হয়ে কাদমপুকুর ব্রিজের দিকে গিয়ে জনাব আবদুল রাহমান ও মিঃ আব্বাস বাড়ির মধ্যে গলি দিয়ে গেছে।নর্দমাটি আবৃত নয় এবং প্রচুর মশা এবং অন্যান্য পোকামাকড়কে জন্মাচ্ছে ও দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এছাড়াও, ড্রেনিং আউটলেটগুলি সম্পূর্ণরূপে অবরুদ্ধ হোয়ে গেছে কারণ একসাথে কয়েক মাস ধরে পরিষ্কার করা হয় নি ফলস্বরূপ, যখন সামান্য ভারী বৃষ্টিপাত হয়, নিকাশী খাল উপচে পড়ে যায় এবং সমস্ত ময়লা রাস্তায় উঠে পড়ে। এই সমস্তগুলি স্বাস্থ্যের জন্য প্রচুর ঝুঁকিপূর্ণ এবং প্রবীণ এবং যুবক উভয়কেই প্রভাবিত হচ্ছে। আমরা মেমারি পৌরসভার চেয়ারম্যানদের কাছে অনুরোধ করছি এটিকে খতিয়ে দেখার এবং নিকাশী ব্যবস্থাটি দ্রুত সাফ করার ব্যবস্থা করার জন্য। নিকাশী থেকে বর্জ্য পরিষ্কার বা পুড়িয়ে ফেলতে দয়া করে নিকাশী কর্মীদের বলতে বলছি। এছাড়াও আমরা জনসাধারণকে আবারও অনুরোধ করছি যে আমরা আমাদের নিজের শহরে একটু শ্রদ্ধা ও ভালবাসা প্রকাশ করি এবং শুকনো এবং ভেজা বর্জ্যকে আলাদা করে আমাদের অঞ্চলের কল্যাণে অবদান রাখতে অনুরোধ করি এবং সাধারণ নাগরিক দায়িত্ব লঙ্ঘন না করি । আমরা সবাই যেন যথাযথ বর্জ্য নিষ্কাশন পদ্ধতি অনুসরণ করি।

 


আলাপ সেখ, কদমপুকুর, মেমারি।


আপনার এলাকার বিভিন্ন সমস্যা অথবা প্রশাসনিক কাজকর্মের ভালো-মন্দ, কিংবা সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া বিষয়ের উপর আপনার নিজস্ব মতামত বাংলায় টাইপ করে পাঠকের কলম বিভাগে ই-মেল newszerpoint@gmail.com করুন।

Related posts

গুসকরা পৌরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলরের ৫০ হাজার টাকা দান মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে

E Zero Point

মনুষ্যজীবনের জন্যই জগতের নাথ – ভগবান জগন্নাথ রথের সময় থাকবেন পুরীর মন্দিরেই

E Zero Point

যেমন দেখি তাঁকে : পরাগজ্যোতি ঘোষ (প্রথম কিস্তি)

E Zero Point

মতামত দিন