19/07/2024 : 11:39 PM
অন্যান্য

রাজ্যে করোনা সংক্রমণের জেরে স্তব্ধ অন্যান্য জরুরী চিকিৎসা ব্যবস্থা

বিশেষ প্রতিবেদনঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করবার জন্য রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের ঘোষণা অনুসারে লকডাউন চসছে গোটা দেশে। স্বাস্থ্য পরিষেবার জন্য সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতাল চালু থাকলেও  সাধারণ ও জীবনদায়ী রোগাক্রান্ত মানুষেরা ঠিকমত চিকিৎসা পাচ্ছেন না। বাস্তবে সকরকারী হাসপাতালগুলোর জরুরী বিভাগ খোলা থাকলেও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অনুপস্থিতির কারণে সাধারণ রোগ থেকে ক্রনিক রোগাক্রান্ত মানুষেরা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির সাথে সাথে এই ব্যাপারে রাজ্য সরকারের পদক্ষেপ নেওয়া জরুরী – এই মর্মে  পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, রাজ্য সচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিবকে ই-মেইলের মাধ্যমে চিঠি দেওয়া হল।

সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মইদুল ইসলাম ও সভাপতি ছবি চাকী জানান যে, ক্যান্সার, থ্যালেসেমিয়া ছাড়াও অন্যান্য ক্রনিক রোগাক্রান্ত মানুষগুলো অসহায় বোধ করছেন। পরিবহন ব্যবস্থা ও লকডাউনের বিধিনিষেধের ফলে তারা নিয়মিত কেমো থেরাপি ও রক্ত ডায়ালিসিসের মতো জরুরী পরিষেবা নিতে গিপশ্চিম বঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মঞ্চেরয়ে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের সদস্য শ্রীমন্ত ঘোষ জানান যে, করোনা পরিস্থিতির পূর্ব থেকে যেসব মারণরোগাক্রান্ত মানুষেরও বাঁচার অধিকার আছে। শুধুমাত্র রুটিন চেকআপ করাতে পেরে যদি তাদের মৃত্যু ঘটে, তাহলে সমাজের কাছে লজ্জাজনক ঘটনা হবে। বর্তমান সরকারের উচিৎ এই বিষয়ে যথাযোগ্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা।

Related posts

গুসকরা পৌরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলরের ৫০ হাজার টাকা দান মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে

E Zero Point

আউশগ্রাম ১নং ব্লকের ৭ টি অঞ্চলে খাদ্য সামগ্রী বিতরন

E Zero Point

চেন্নাই থেকে ১৩ জন আউশগ্রামের পরীযায়ী শ্রমিক আজ বাড়ী ফিরলেন

E Zero Point

মতামত দিন