26/09/2022 : 9:00 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানমেমারি

নিখোঁজ কিশোরের গলা-পচা দেহ উদ্ধার মেমারির করোন্দা গ্রামে

নূর আহামেদ, মেমারিঃ আজ মেমারি থানা এলাকার করোন্দা গ্রামের বাঁকা নদীর ধার থেকে এক নিখোঁজ কিশোরের গলা-পচা দেহ উদ্ধার করলো মেমারি থানার পুলিশ। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা গ্রামে।

ঘটনা সূত্রে জানা যায় যে, গত ১৭ মে সন্ধ্যা থেকে পালসিট করোন্দা গ্রামের বাসিন্দা শুভো মন্ডল বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। পরিবারের পক্ষ থেকে মেমারি থানায় নিখোঁজের লিখিত অভিযোগ করা হয়। গত ১০ দিন ধরে পুলিশ এবং পরিবারের পক্ষ থেকে কিশোরের খোঁজ শুরু হয়। পরিবার ও এলাকাবাসীর কাছে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে জানা যায় যে, ভৈটা হরিদাসকর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র শুভো মন্ডল মোবাইলে একটি বিশেষ গেম খেলার নেশায় মেতে ছিল এবং মাঝে মাঝে গেম খেলতে গিয়ে মোবাইল হ্যাক হলে পালসিট বাজারে তার এক বন্ধুর কাছে যেতো। নিখোঁজ হওয়ার দিনেও উক্ত বন্ধুর কাছে যায় শুভো মন্ডল কিন্তু আর ফিরে আসেনি।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মেমারি থানার পুলিশ তার বন্ধুদের গতকাল সকালে আটক করে। পুলিশ তার বন্ধুর কাছ থেকে মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে কিন্তু সিম কার্ড পাওয়া যায়নি। দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদের জেরে তারা স্বীকার করে যে,  মোবাইল গেম খেলাকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে বচসা হয় এবং রাগের মাথায় তারা গলায় গামছা দিয়ে শ্বাসরোধ করে শুভোকে হত্যা করে।

প্রাপ্ত তথ্যানুসারে অবশেষে আজ সকালে পুলিশ করোন্দা গ্রামের মাঠে ক্যানেলের ধারের ঝোঁপ থেকে শুভো মন্ডলের দেহ উদ্ধার করে। পচা গলা দেহে লেগে থাকা পোষাকের মাধ্যমে শুভো মন্ডলকে সনাক্ত করে পরিবারের লোকজন। পুলিশ দেহের ভগ্নাবশেষ একত্রিত করে ময়না তদন্তের জন্য জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায় যে, গ্রামবাসীরা মাঠের ধারের ঝোঁপ থেকে পচা দুর্গন্ধ বের হতেই তারা পুলিশকে খবর দেয়। এলাকাবাসীদের অনুমান, খুন করে তাকে নদীর ধারে পুঁতে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু গতকাল প্রবল বৃষ্টির ফলে বের হয়ে গেছে দেহটি ।

নির্মল মন্ডল ও সাগরিকা মন্ডলের একমাত্র পুত্র সন্তান শুভো মন্ডল। বাবা-মা কাতর কন্ঠে সন্তানের অপরাধীদের ফাঁসির দাবি করেন প্রশাসনের কাছে।

মেমারি থানার পুলিশ উক্ত ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে এবং শুভো মন্ডলের বন্ধু শুভঙ্কর বিশ্বাস ও সুখেন মাঝিকে আজই বর্ধমান আদালতে তোলা হয় এবং নাবালক হওয়ায় সেখান থেকে তাদের কলকাতার হোমে পাঠানো হয়।

 

Related posts

ভাতার থানার পক্ষ থেকে ভাতার হাসপাতালে স্বাস্থ্যকর্মীদের সম্বর্ধনা

E Zero Point

পঞ্চায়েত নির্বাচন পাখির চোখঃ বিভিন্ন দাবী নিয়ে বামেদের ডেপুটেশন মেমারিতে

E Zero Point

মেমারিতে কালবৈশাখীর মৃদু প্রভাব, এখনও ব্যবস্থা না নিলে বিপদ মাথার উপরে

E Zero Point

মতামত দিন