07/10/2022 : 11:45 AM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানমেমারি

ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণার আগেই তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ মেমারিতে

জিরো পয়েন্ট নিউজ ডেস্ক, মেমারি,  ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১:


এখনও আসন্ন বিধানসভা ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়নি এরই মধ্যে তৃণমূল এবং বিজেপির সংঘর্ষ তেতে উঠল মেমারির থানার কেজাগ্রাম l সংঘর্ষে আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের বেশকয়েক জন।

রবিবার বিকালে বিজেপি নেতা ভীষ্মদেব ভট্টাচার্য্য ও উজ্জ্বল দের নেতৃত্বে আমাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কেজা গ্রামে মিছিলের আয়োজন করা হয় | অপরদিকে একই সময়ে মেমারি ১ ব্লক সভাপতি মধুসূদন ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে তৃণমূলের একটি বাইক মিছিল এগিয়ে আসছিল আমাদপুর থেকে কেজাগ্রামের বাঁধ ধরে। কাকডাঙ্গার দিক থেকে বিজেপির মিছিল এগিয়ে আসায় উপস্থিত পুলিশকর্মীরা প্রধান রাস্তাটি নিয়ন্ত্রণ করে। ঠিক সেই সময়ই বড়পুলের বাঁধের কাছে তৃণমূল-বিজেপির কর্মী সমর্থকরা একে অপরের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে | বচসা থেকেই হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে উভয় পক্ষই।

তৃণমূলকর্মীরা অভিযোগ করেন রড, লাঠি দিয়ে উদ্দেশ্যে প্রণদিত ভাবে তাদের ওপর বিজেপি আক্রমণ করে। বিজেপি কর্মীরা বাইক ভাঙচুর করে, মহিলাদের উপর আক্রমন করে বলে তিনি জানান।

সংঘর্ষে তৃণমূলের আমাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের স্বামী বনমালী হাজরা, ছেলে শান্তনু হাজরা, সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি সেখ গিয়াসুদ্দিস সহ আট জন আহত হয় l শান্তনু হাজরার মাথা ফেটে যায় লাঠির আঘাতে।

আমাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সাধনা হাজরা জানান যে, আমাদের একটা বাইক মিছিল ছিলো। কেজার বড়পুলের কাছে আমাদের বিজেপি কর্মীরা আটাকায় পুলিশের সামনেই। তিনি আরও বলেন এইভাবে দাঙ্গা করে রাজনীতি করা যায় না। তিনি দাবী করেন তার ছেলে শান্তনু হাজরাসহ আরও কর্মীদের যে ভাবে মারা হয়েছে, সেই সব দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তি প্রদান করুন মেমারি থানা।

অন্যদিকে মেমারি ১ ব্লক সভাপতি মধুসূদন ভট্টাচার্য বলেন, বিজেপি নেতা ভীষ্মদেব ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে এই ঘটনা ঘটে | ভীষ্মদেব ভট্টাচার্য সহ ৪জনের বিরুদ্ধে মেমারি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে |

বিজেপি নেতা ভীষ্মদেব ভট্টাচার্য বলেন পুলিশি অনুমতিতেই আমরা কর্মসূচি অনুযায়ী মিছিল করছিলাম। কিন্তু প্রশাসনের উপস্থিতিতে কেন অনুমতি ছাড়াই কেন শাসকদল একই স্থানে মিছিল করে। যদিও তিনি বলেন, বিজেপি কোন আক্রমন করেনি। ওরা মিথ্যে অভিযোগ করছে। বরং তৃণমূল বিজেপির মিছিলে হামলা চালায়। আর তা প্রতিরোধ করতে গিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে উভয় পক্ষই | অন্যদিকে বিজেপির পক্ষ থেকেও থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

একই স্থানে একই সময়ে তৃণমূলের বাইক মিছিলের অনুমতি সংক্রান্ত প্রশ্নে মেমারি ১ ব্লক সভাপতি মধুসূদন ভট্টাচার্য বলেন, আধিকারিকভাবে অনুমতি না নেওয়া হলেও মিছিল শান্তিপূর্ণ ভাবেই সংগঠিত হচ্ছিল। বিজেপির কর্মীরায় সেই শান্তিপূর্ণ মিছিলে অশান্তির সৃষ্টি করে।

Related posts

পুলিশ দিবস পালিত হল রায়নার মাধবডিহি থানার উদ্যোগে

E Zero Point

গরু পাচার মামলায় কি পুরন্দরপুর – পাচুন্দির নাম আসতে পারে?

E Zero Point

মেমারিতে রক্তদান শিবির

E Zero Point

মতামত দিন