30/09/2022 : 12:36 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গদুর্গাপুরপশ্চিম বর্ধমান

দুর্গাপুরে রাখীবন্ধন ও বৃক্ষরোপণ উৎসব পালন

জিরো পয়েন্ট নিউজ, নীহারিকা মুখার্জ্জী, দুর্গাপুর, ২৬ অগাষ্ট ২০২১:


দীর্ঘদিন ধরে বাংলার সাহিত্য ও সংস্কৃতি জগতে এক উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে চলেছে পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুরের ‘আন্তরিক’ সাহিত্য পত্রিকা গোষ্ঠী। মনীষীদের জন্মদিন-মৃত্যুদিন পালন, জন্মভিটে থেকে পবিত্র মাটি সংগ্রহ, সাহিত্য বাসরের আয়োজন করা থেকে শুরু করে সাহিত্য বিষয়ক সমস্ত কাজই তারা করে গেছে। এবার দুর্গাপুর এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেরার সোসাইটির সঙ্গে তারা যৌথ উদ্যোগে দুর্গাপুরের মাটিতে পালন করল রাখীবন্ধন উৎসব। পরিবেশকে দূষণ মুক্ত রাখার জন্য সঙ্গে সঙ্গে চলে বৃক্ষরোপণ।


গত ২১ শে আগষ্ট দুর্গাপুর সিটিসেন্টারে ট্রয়কা পার্ক সংলগ্ন নজরুল মূর্তির পাদদেশ থেকে শুরু হয় এই উৎসব। চিকিৎসক ও সাহিত্যিক শর্মিষ্ঠা দাস, এডুকেশন সোসাইটির সভাপতি বাসুদেব মন্ডল, আন্তরিক পত্রিকার সম্পাদিকা অন্তরা সিংহরায় ও কর্ণফুলির ধারে পত্রিকার সম্পাদিকা কাকলি গুহ রক্ষিত প্রদীপ প্রজ্বলন করে উৎসবের সূচনা করেন। উপস্থিত কবি, সাহিত্যিক ও শিল্পীরা ২০ টি পাতাবাহার গাছ লাগান। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ও বিদ্রোহী কবি নজরুলের মূর্তিতে মাল্যদান করা হয়।

এরপর বিশ্বকবির গানের সুরে সুর মিলিয়ে শহরের বিভিন্ন এলাকা পরিক্রমা করা হয়। পথচারী, পথ শিশু, বাস ও অটোর চালক ও সাধারণ নাগরিকদের হাতে বেঁধে দেওয়া পবিত্র রাখী এবং মৈত্রী ও সম্প্রীতির বার্তা দেওয়া হয় সাধারণের মধ্যে। একই সঙ্গে তাদের মিষ্টি মুখও করানো হয়।


প্রবল বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে সংগীত শিল্পী বৈশাখী মুখার্জ্জী, সোমনাথ ব্যানার্জ্জী, কবি সুতপা অধিকারী সেন, সমাজসেবক স্নাতকোত্তর পাল, সীমা সেনগুপ্ত, কবি শরবিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় , নৃত্য শিল্পী মৈত্রেয়ী দত্ত, সীমা দেব প্রমুখদের সঙ্গীত, আবৃত্তি ও নৃত্যের তালে এগিয়ে চলে মিছিল এবং তার সঙ্গে পা মেলায় শহরের অনেক সাধারণ মানুষ । বেশ কিছুদিন ধরে দুর্গাপুরের বিভিন্ন মোড়ে অবস্হিত মনীষীদের মূর্তিগুলিকে অসম্মান করা হচ্ছে। মুর্তির চারপাশে জমে আছে আবর্জনা, আগাছা। আজকের অনুষ্ঠান থেকে মুর্তিগুলির চারপাশ পরিষ্কার করে সেগুলি বাগানের আকারে সাজানোর দাবিও ওঠে।


প্রসঙ্গত ১৯০৫ সালে বঙ্গভঙ্গের প্রতিবাদে এবং হিন্দু, মুসলিম সহ সমস্ত ভারতীয়দের মধ্যে ঐক্য সাধনের উদ্দেশ্যে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রাখীবন্ধন উৎসব প্রবর্তন করেন।
দুর্গাপুর এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সম্পাদিকা ভাস্বতী গুপ্ত এই বর্ষণমুখর দিনে উপস্হিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ।


‘আন্তরিক’ পত্রিকার সম্পাদিকা অন্তরা সিংহরায় সকলকে পবিত্র রাখীর শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জ্ঞাপন করেন এবং বলেন – আজ এই পবিত্র দিনে হিন্দু, মুসলিম সহ সমস্ত ভারতবাসীর মধ্যে যেমন রবীন্দ্রনাথের মৈত্রী ও প্রীতির বাণী প্রচার করছি তেমনি দুর্গাপুরের বিভিন্ন মোড়ে অবস্হিত মহাপুরুষদের মূর্তিগুলির সামনের অংশে বাগান তৈরী করে দেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি তুলছি। আশা করি দুর্গাপুরের সংস্কৃতি প্রেমী মানুষেরা এব্যাপারে সচেষ্ট হবেন।

Related posts

ঘরের মেয়ে উমা জন্য বিষাদের সুর………….

E Zero Point

পূর্বস্থলী স্টেশনে চলছে জোড় কদমে প্রস্তুতি

E Zero Point

নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করে দিল প্রশাসন মঙ্গলকোটে

E Zero Point

মতামত দিন