28/11/2022 : 5:27 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানমেমারি

৪ বছরের অপেক্ষার অবসানঃ মেমারি ১ ব্লক সভাপতি নিত্যানন্দ ব্যানার্জির রাজকীয় প্রবেশ পঞ্চায়েত সমিতির অফিস প্রাঙ্গণে

জিরো পয়েন্ট নিউজ ডেস্ক,  এম. কে. হিমু ও অতনু ঘোষ, মেমারি, ১৩ অক্টোবর ২০২২:


প্রায় দীর্ঘ সাড়ে চার বছর পর আজ ১৩ই অক্টোবর মেমারি এক নম্বর ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতি কার্যালয় রাজকীয়ভাবে প্রবেশ করলেন মেমারি এক নম্বর ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি নিত্যানন্দ ব্যানার্জি।

মেমারির বামুনপাড়া মোড় থেকে ঢাক ডঙ্কা ধামসা মাদল বাজিয়ে মেমারি এক নম্বর ব্লক অফিস প্রাঙ্গণ পর্যন্ত অগণিত তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের নিয়ে নিত্যানন্দ ব্যানার্জির রাজকীয় আবির্ভাব মেমারি এক নম্বর ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতি কার্যালয়ে। সেখানে প্রথমে তিনি পঞ্চায়েত অফিসের সামনে স্বামী বিবেকানন্দর পূর্ণাঙ্গ মূর্তিতে মাল্যদান করেন। যদিও তৃণমূল নেতা কর্মীদের উচ্ছ্বাসের জেরে মেমারি বামুনপাড়া মোড় থেকে চেকপোষ্ট পর্ষন্ত বেশ কিছুক্ষণ যানজটের সৃষ্টি হলে মেমারি থানার পুলিশ এসে যান নিয়ন্ত্রণ করে।

পরে মেমারি ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বসন্ত রুইদাস, সহ-সভাপতি সেখ মোয়াজ্জেম ও শিক্ষা ও সংস্কৃতি কর্মাধ্যক্ষ আব্দুল হালিম নবনিযুক্ত মেমারি ১ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি নিত্যানন্দ ব্যানার্জীকে সংবর্ধনা দেন।

মেমারি ১ ব্লক ও মেমারি ১  পঞ্চায়েত সমিতির কার্যালয়ে এসে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের বিষয়ে তিনি মেমারি এক নম্বর ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক ড. এম. এ. ওয়ালিউল্লাহ ও মেমারি এক নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সহ-সভাপতির সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

এই দীর্ঘ প্রায় সাড়ে চার বছর পর আনন্দ উচ্ছ্বাস মিছিল সহকারে ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতিতে আসা এবং এসে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সাথে বৈঠক, এই বিষয়ে মেমারি এক নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি নিত্যানন্দ ব্যানার্জি সংবাদমাধ্যমকে জানালেন মমতা ব্যানার্জীর উন্নয়ণ মূলক প্রকল্পগুলিকে মানুষের মধ্যে প্রচার করার কাজ তিনি করবেন। এছাড়াও বিভিন্ন অঞ্চলে যে সমস্ত প্রকল্পের কাজ এখনও পর্যন্ত সম্পন্ন হয়নি সেগুলিকে খতিয়ে দেখে প্রশাসনের সাথে আলোচনা করে দ্রুত সম্পন্ন করার চেষ্টা করবেন।

বিগত দিনে নিত্যানন্দ ব্যানার্জি মেমারি এক নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির শিক্ষা ও ক্রীড়া সংস্কৃতি দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ পদে আসীন ছিলেন।
কিন্তু তারপর দেখা যায় নিত্যানন্দ ব্যানার্জিকে সেই পথ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। দলের তৎকালীন ক্ষমতাশীল নেতারা পরিকল্পনা করে নিত্যানন্দ ব্যানার্জিকে সরিয়ে দিয়েছিলেন বলে করেছেন অনেক সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে দলীয় নেতা কর্মীদের একাংশ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা।

বর্তমানে তিনি মেমারি এক নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য এবং সদস্য হয়েও সেদিনের পর থেকে গতকাল অর্থাৎ প্রায় সাড়ে চার বছর তিনি মেমারি এক নম্বর ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতিতে পা রাখেননি। এদিন মেমারি ১ পঞ্চায়েত সমিতিতে পা দিয়েই তিনি ঘোষণা করেন ১০টি অঞ্চলের সমস্ত তৃণমূল কর্মী নেতাদের নিয়ে তিনি কাজ করবেন। আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের বিকল্প তৃণমূলই। বিরোধীরা কোন ছাপই ফেলতে পারবে না পঞ্চায়েত নির্বাচনে।

এদিন নিত্যানন্দ ব্যানার্জি যেভাবে মেমারি এক নম্বর ব্লক ও পঞ্চায়েত সমিতিতে এলেন তাতে সেদিনের পরিকল্পনাকারী ও চক্রান্তকারীদের যোগ্য জবাব দিলেন বলে মনে করছেন সেই সকল সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে দলের নেতাকর্মীদের একাংশ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা।

অন্যদিকে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে মেমারি ১ ব্লকে প্রাক্তন ব্লক সভাপতি ও বর্তমান বিধায়ক মধুসূদন ভট্টাচার্য্য ও বর্তমান বল্ক সভাপতি নিত্যান্দ ব্যানার্জীর মধ্যে বিগত বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকে যে ঠান্ডা লড়াই চলে আসছিল তার ফল কি হবে তা সময়ই উত্তর দেবে।


Related posts

শ্রীরাম মন্দির নির্মাণের জন্য অর্থ সংগ্রহের কমিটি গঠন বর্ধমানে

E Zero Point

মানহানি মামলায় দ্রুত বিচারের জন্য আদালতে দিলীপ ঘোষ 

E Zero Point

নতুন শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে মিছিল, বিক্ষোভ

E Zero Point

মতামত দিন