01/02/2023 : 7:11 AM
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানমেমারি

মেমারির জোড়াসাঁকো ব্রিজের গার্ডওয়ালের ধসে আতঙ্কিত এলাকাবাসীঃ পরিদর্শনে প্রশাসনিক আধিকারিকরা

জিরো পয়েন্ট নিউজ–সুব্রত চক্রবর্তী, মেমারি,২৪ ডিসেম্বর ২০২২:


পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারির পারিজাতনগরে মেমারি তারকেশ্বর ১৩ নম্বর রাজ্য সড়কের উপর অবস্থিত জোড়াসাঁকো ব্রিজে ধস। আতঙ্কিত স্থানীয়রা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হঠাৎ বিকট শব্দ শুনতে পান স্থানীয় মানুষজন। এরপর বাইরে বেরিয়ে দেখেন ভেঙে পড়েছে ব্রিজের গার্ডওয়াল। প্রতিনিয়ত এই ব্রিজে প্রচুর যানবাহন চলাচল করলেও দীর্ঘদিন কোন সংস্কার বা রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়নি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। ঘটনার পর খবর দেয়া হয় মেমারি থানায়। এরপর প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিপদজনক অংশ ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়। তবে এই ঘটনায় হতাহতের কোন খবর নেই।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দুর্ঘটনা প্রবন ঐ এলাকা পরিদর্শনে আসেন মহকুমা শাসক কৃষনেন্দু কুমার মন্ডল, এসডিপিও বর্ধমান সদর দক্ষিণ সুপ্রভাত চক্রবর্তী, বিডিও ডক্টর আলি মোহাম্মদ ওয়ালীউল্লাহ, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বসন্ত  রুইদাস ও সহ-সভাপতি শেখ মোয়াজ্জেম, বিধায়ক মধুসূদন ভট্টাচার্য এবং মেমারি থানার ওসি সুদীপ্ত মুখার্জি সহ অন্যান্য প্রশাসনিক আধিকারিকরা।

এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সহ-সভাপতি দেবু টুডু বলেন, দুর্ঘটনার কথা শুনেছি। জেলা ও ব্লকের প্রশাসনিক কর্তাদের অবহিত করা হয়েছে। দ্রুত রক্ষনা-বেক্ষনের কাজ শুরু করা হবে। শুক্রবার সন্ধ্যায় সেই মতো জেলা প্রশাসনিক আধিকারিকরা মেমারির পারিজাতনগর সংলগ্ন জোড়াসাঁকো ব্রিজ পরিদর্শনে আসেন।

মহকুমা শাসক বর্ধমান সদর দক্ষিণ কৃষ্ণেন্দু কুমার মন্ডল বলেন, আমরা বিষয়টি দেখলাম, সেচ দপ্তর এবং পূর্ত দপ্তরের আধিকারিকরা এসেছেন তারা সম্পূর্ণ বিষয়টি খতিয়ে দেখে শনিবার থেকেই ব্রিজের রক্ষণাবেক্ষণের কাজ শুরু করা হবে। এসডিপিও বর্ধমান সদর দক্ষিণ সুপ্রভাত চক্রবর্তী বলেন, ব্রিজের কাজ চলাকালী ন ব্রিজের একটি অংশ বন্ধ করে কাজ করতে হবে। যাতে কোনো রকম দুর্ঘটনা না ঘটে, অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশের নজরদারি থাকবে।

মেমারির বিধায়ক মধুসূদন ভট্টাচার্য বলেন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এলাকার পরিদর্শন করলাম। ভাঙ্গা অংশটি একেবারেই বিপদজনক ভাবে রয়েছে ইতিমধ্যেই ইঞ্জিনিয়াররা এসেছেন শনিবার থেকে কাজ শুরু হবে যত দ্রুত সম্ভব কাজ সম্পন্ন করে বৃষ্টিকে খুলে দেয়া হবে। মেমারি পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি সেখ মোয়াজ্জেম জানান, আগামীদিনে যাতে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে ব্যপারে সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করে ব্রীজের রক্ষানাবেক্ষনের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মেমারি চকদিঘি মোড় থেকে তারকেশ্বর যাওয়ার ১৩ নম্বর রাজ্য সড়ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একদিকে যেমন রয়েছে হাওড়া বর্ধমান কর্ড লাইন শাখার মশাগ্রাম রেলস্টেশন। অপরদিকে রয়েছে দু নম্বর জাতীয় সড়ক। পাশাপাশি মেমারি পারিজাত নগর সংলগ্ন এলাকায় রয়েছে মেমারি গর্ভমেন্ট পলিটেকনিক কলেজ। কোনভাবে যদি এই ব্রিজ দুর্ঘটনায় কবলে পড়ে সেক্ষেত্রে সম্পূর্ণভাবে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগের ভিত্তিতে ভারী যানবাহন চলাচল যাতে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভবপর হয় সেদিকেও নজর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রশাসনিক। সব মিলিয়ে এখন দেখার বিষয় কত দ্রুত ব্রীজ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ সম্পন্ন হয়।

প্রসঙ্গগত উল্লেখ্য বারবার এই  মেমারি তারকেশ্বর ১৩ নম্বর রাজ্য সড়কে অবস্থিত জোড়াসাঁকো ব্রীজে বর্ষার সময় প্রায়ই ধস নামে তারপর নাম কা ওয়াস্তে তা ঠিক করা হয় বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এলাকাবাসীদের দাবী প্রশাসনিক নজরদারীতে মেরামত না হলে ভবিষ্যতে কোন বড় দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে।

Related posts

গলায় দড়ি দিয়ে টাঙিয়ে দেওয়ার অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

E Zero Point

কান্দিতে তৃণমূলের প্রতিবাদ সভা

E Zero Point

সামসেরগঞ্জের ডাকবাংলায় প্রতিবন্ধীদের বস্ত্র বিতরণ

E Zero Point

মতামত দিন