27/09/2022 : 9:50 AM
BREAKING NEWS
অন্যান্য

অরণ‍্যদেব কথা-৩

অরণ‍্যদেব কথা-৩


সভ্যরা গাছ কেটে সভ্যতার কংক্রিট তৈরি করেছে আর অসভ্যরা জঙ্গলে বংশবিস্তার করে চলেছে । প্রয়োজনের তাগিদে এক কোষী অ্যামিবা থেকে মানুষ পর্যন্ত বিবর্তনটা ভাবলেই অবাক করে, তার জন্য অনেক অনেক জীবনের মানিয়ে নেওয়াই কাজ করে গেছে ।  এই মানিয়ে নেওয়া কেবল জীবন্তরাই করেছে এমনটা নয় নদীর গতিপথ বদলে গেছে, অনেক জলা নিজেকে শুকিয়ে নিয়েছে, অনেক গঙ্গা এতো গতিপথ পেরিয়েও নিজেকে শুদ্ধ করতে ভুলে গেছে ইত্যাদি ইত্যাদি !!

আমরা মানুষ তাই ক্রমাগত নিজেদের বদলে ফেলছি, ইচ্ছার পরিবর্তন করছি । জীবনকে বেঁচে থাকার তাগিদে মানিয়ে নিয়ে চলছি । যেমনটা ধরুন যিনি ডাক্তার হয়ে সমাজের সেবা করবেন বলে ভেবেছিলেন তিনি পরিস্থিতির কারনে হয়তো অন্য পেশায় চলে গেছেন, যিনি একদিন দশ জনের একজন হবে বলে ভেবেছিলেন তিনি হয়তোবা বর্তমানে পথে পথে চেয়ে ফিরছেন । এমন অনেক উদাহরণ আমাদের জীবনে ক্রমাগত হয়ে চলেছে ।  একে বিবর্তন না বলে বলে বরং কম্প্রোমাইজ বা ইচ্ছার মৃত্যু বলা চলে । বলাইবাহুল্য যে আমরা আমাদের জন্মের কারন ভুলে পরিস্থিতি বা সমালোচকের দ্বারা প্রভাবিত বা প্রতারিত হয়ে জীবনের অমূল্য সময় অপচয় করে চলেছি । উদাহরণ স্বরূপ বলাই যায়, রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, শেক্সপিয়ারের মতো লেখালেখিতে তেমন কেউ সাফল্য পাবেন না জেনেও অনেক ভালোলাগা ভালো থাকার জোড়ে অনেকেই শেষ বয়স পর্যন্ত কলম ধরে রেখে প্রচুর প্রচুর মৃত মানুষের ভিড়ে পুড়ে যাওয়া অ্যামাজনের মধ্যে অক্ষত হয়ে থাকা অঙ্কুরের মতো সাবলীল ভাবে বেঁচে রয়েছেন ।

তাই নিজেদের জীবনের জন্মের কারনকে বাঁচিয়ে রাখুন । নিজেকে বটবৃক্ষের মতো ঝড় বৃষ্টির মধ্যেও দৃঢ় রাখুন । নিজেকে প্রতিকুলতার দ্বারা মচকাতে দিলেও ভেঙে ফেলতে দেবেন না । কৃত্রিম ভাবে নদীর গতিপথের পরিবর্তন আনলেও সৃষ্টির নিয়মে তার সন্মুখে আসা সমস্ত বাঁধাকে স্রোতে প্লাবিত করে বয়ে নিয়ে যায় সাগরে, আপনিও সেই সৃষ্টির অংশ । ক্ষরস্রোতা নদীর মতো নিজের স্রোতে নিজেকে বয়ে যেতে দিন কারন বৃষ্টির জলে প্লাবিত হওয়া নদীগুলো অধিকাংশ গতিপথেই শুকিয়ে যায় । এই সৃষ্টিতে নিজের পায়ের ছাপ রেখে যান যাতে পথে হারিয়ে যাওয়া মানুষ গুলো তাদের ভালো থাকার গন্তব্য খুঁজে পায় । ভালো থাকুন ।

Related posts

করোনার রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের

E Zero Point

বিধায়কের উপস্থিতিতে বড়শুল কিশোর সংঘের ত্রাণ শিবির

E Zero Point

আজ মধ্যরাত থেকে পুরো ভারত ২১ দিনের জন্য লকডাউন : প্রধানমন্ত্রী

E Zero Point

মতামত দিন