25/09/2022 : 12:47 AM
BREAKING NEWS
অন্যান্য

ছড়া-নাটিকা —করোনা দাওয়াই | সুশান্ত পাড়ুই

ছড়া-নাটিকা
নাটিকা —করোনা দাওয়াই
রচনা —✒সুশান্ত পাড়ুই ✒
রচনা কাল —১৯/০৩ /২০২০
——————০—————–
চরিত্রগন:
গোপাল দাদু —বয়স ৭৫/৮০
কালীপদ—বয়স ১২/১৪

(ঘটনা স্থল—পাড়ার চায়ের দোকান। গোপাল দাদু চা খাচ্ছেন। কালীপদ দ্রুতলয়ে প্রবেশ।)

গোপাল দাদু :
বলি ওরে ও কেলো, ব্যাটা মহা পিচকে
যাস্ কোথা? শোন, ঘাড় দেব মটকে।
রাততিরে তোর নাকি ঘন ঘন জ্বর হয়?
ধরেছি ঠিক, মনে হয় কামড়েছে করোনায়।
তাই বুঝি ছুট দিস মুখ করে আমসি!
সক্কালে খেয়ে নিস পাতা কয় তুলসী।

কালীপদ :
কেলো নয়, কালীপদ, বোঝো কলা আমড়া
চারঠ্যাং হয়ে গেছো ঝুলে গেছে চামড়া।
অকারণে জ্ঞান দাও, ঘটে নেই ধারনা
হ্যাঁচফ্যাঁচ কাসলেই। হবে নাকি করোনা??

গোপাল দাদু 🙁 রেগে গিয়ে)
থাম্ থাম্, এঁচোড় পাকা দুদিনের ছোকরা
নাক মুখ ঢেকে রাখ্ , দিয়ে ছেঁড়া ন্যাকড়া।
গায়ে তে গোবর মাখ্, খাস্ গো-মূত্র
তুলসীর পাতা খাবি, করোনা র সূত্র।
জলপড়া পাওয়া যায় বাম্নীর বাড়িতে
তেলপড়া নিয়ে যাস্ সারা গায়ে মাখতে।
চীনে নাকি একবার বলেছিল হো-চি-মিন
করোনার হবে নাস গায়ে মেখে তারপিন।
শুনলাম, মিশরের পিরামিডে বলে এক ফসিলে
ফিনাইল গায়ে মেখে ঘাসে শোয় উকিলে।
লন্ডনে জেনেশুনে কোরে ভারি চিন্তা
খালি পেটে ফল খায় বিকেলে তে পান্তা।
দেখলাম টিভিতে লোকে নাকি কটকে
নিরামিষ ঝোল খায় আরশোলা চটকে।
শুনলাম, কানাডার কোন এক শহরে
শুঁয়োপোকা ধরে খায় করোনার বহরে।
কেঁচো খেলে তেলে মুলে ব্রেন হবে টানটান
নাস করো নাস করো করোনার শয়তান।

কালীপদ : (রেগে গিয়ে)
থাম্ থাম্, এঁচোড় পাকা দুদিনের ছোকরা
নাক মুখ ঢেকে রাখ্ , দিয়ে ছেঁড়া ন্যাকড়া।
স্কুলে স্যার বলেছেন, মারা চাই পোস্টার
জনে জনে বলা চাই কি কি করা দরকার।
তাই আমি ছুটছি বিলটেকে ডাকতে
মুখ ঢাকো মাক্স পরো করনাকে রুখতে।

গোপাল দাদু : (তাচ্ছিল্য করে)
দুর দুর, চার কাল পেরিয়ে এক কালে ঠেকেছে
স্যার স্যার ধ্যার ধ্যার! ভাইরাস পড়েছে??
ভাইরাস খায় হাঁস আজগুবি মোটে নয়
ঝাঁটা কুলো বেঁধে রাখ্ কেটে যাবে সব ভয়।
জোনাকির ধোঁকা খা বানিয়ে কয়েক বাটি
একটু খানি খেতেও পারিস তুলসী তলার মাটি।
গতকাল টিভির এক শুনলাম খবরে
মড়ারাও জেগে ওঠে টোটকার জবরে।
তোর স্যার কিপ্পন, বদমাস, কুঞ্জুস টাকাতে
এভাবে কি পারবে সে করোনাকে ঠেকাতে।
কবিরাজ বলছিল গতকাল দুপুরে
করোনা সেরে ওঠে ভাপা-ব্যাঙ ভেপারে।
খেলে নাকি বড়া করে কেউটের ডিম দুই
গুবরের পায়েসে করোনাও কুঁইকুঁই।
যদি খাস এক গ্লাস জোনাকির লস্যি
শিশু বুড়ো ছোকরা হয়ে যাবে দস্যি।
রবিবারে পড়লাম আজকাল পেপারে
গঙ্গায় ডুব দিলে চুকে যাবে হ্যাপা-রে।
ভালো হয় যদি খাস্ দূব্বার কচি ঘাস
করোনাও চিৎপাত মিছে কেন ভয় পাস??

কালীপদ: (বেজায় চটে ও চেঁচিয়ে)
ফ্যাচফ্যাচ কোরো নাতো তুমি এক কেষ্টা
আমাদের করা চাই কিছু কিছু চেষ্টা।
শুনে রাখো দোকানের যত আছো সব্বাই
করোনাকে রুখতে কি কি আজ করা চাই।
সিনেমা, শপিং মলে, জমায়েতে যোগদান
কটা দিন থেমে যাও হও সবে সাবধান ।
এসিতে ঘুমোতে হবে, আয়েস্ক্রিম ঠাণ্ডা
এইবার ছাড়ো সব ন্যাকামি ও ফান্ডা।
বারবার হাত ধোও ভালো করে সাবানে
জামাটাও বদলাবে শুনে রাখো দু-কানে।
নুনজলে বারেবারে করা চাই গার্গেল
গুজবে দেবেনা কান ছড়াচ্ছে রাসকেল।
মাক্স পরো , পরো মাক্স, বাইরেতে বেরুলেই
আমাদের হবে জয় চেষ্টাটা করলেই।
বাড়ি ফিরে ভালো করে ধুয়ে ফেলো পা-দুটো
প্রতিরোধ গড়ে তোলো করোনাও হবে ঠুঁটো।
জনে জনে ফোনে ফোনে সতর্ক করা চাই
করোনা রুখবই হাতে হাত রাখো তাই।
মনে রেখো ধ্যান দিয়ে টোল ফ্রি নম্বর
ফোনেতেই বলছে রিংটোন জব্বর।
ফেসবুক হোয়াটস-আপ প্রচারেও দলবল
করোনার কুপোকাত বিশ্বের মঙ্গল।
করো পন, পন করো পৃথিবীকে বাঁচাবোই
শিশু বুড়ো সব্বাই নিয়ম টা মানা চাই।
আল্লা-গড-ভগবান রাখো সবে মাথাতে
মানুষে দিয়েছে ডাক মানুষ কে বাঁচাতে।
—————————————-
✒সুশান্ত পাড়ুই ✒

Related posts

পাঠকের কলম : লকডাউনে সামাজিক দূরত্ব থাকুক দুটি শরীরের মধ্যে, বুদ্ধিজীবি ও শ্রমজীবির মানসিকতার মধ্যে নয়

E Zero Point

লকডাউনে বর্ধমানের চাঁদসোনা এলাকায় বসলো “বিনা পয়সার হাট”

E Zero Point

বর্ধমানে খরিফ মরসুমে প্রথম জল ছাড়া হবে ২৪ শে জুলাইঃ জেলা শাসক

E Zero Point

মতামত দিন