30/09/2022 : 11:39 AM
BREAKING NEWS
অন্যান্য

এক নজরে দেখে নিন – লকডাউনের মধ্যে বাধাহীন ভাবে পণ্য সরবরাহে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশিকা

সংবাদঃ সংস্থাঃ দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা করতে যে প্রতিরোধমূলক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বা লকডাউন জারি করা হয়েছে, সেখানে মানুষের দৈনন্দিন জীবনে সমস্যা দূর করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, একটি নির্দেশিকা জারি করেছে।
https://mha.gov.in/sites/default/files/PR_Consolidated%20Guideline%20of%20MHA_28032020%20%281%29_0.PDF

দেশের মধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পরিষেবা নিশ্চিত করতে এই স্পষ্টীকরণ। দেশের কোন কোন অংশে লকডাউনের সময় ট্রাক চালক, গুদামঘর এবং কোল্ড স্টোরেজের কর্মীদের যাওয়া আসার ক্ষেত্রে কিছু সমস্যার কথা উঠে এসেছে। যে সমস্ত ট্রাক, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে যাওয়া আসা করছে, তাদের আটকানো হচ্ছে, যেসব কর্মী নিত্যপ্রয়োজনী সামগ্রী উৎপাদনের কাজে যুক্ত তাদের চলাচলের জন্য নির্দিষ্ট পাস সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দিচ্ছে না। এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে মালপত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বিভিন্ন রাজ্যে সমস্যা সৃষ্টি করা হচ্ছে। গুদামঘর এবং কোল্ড স্টোরেজে কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে, অত্যাবশক পণ্যের যেন কোনো ঘাটতি না হয়, তার জন্য নিম্নলিখিত বিষয়গুলি নজর রাখতে হবে –

•      রাজ্যের মধ্যে এবং এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে ট্রাকে করে যে জিনিসই নিয়ে যাওয়া হোক না কেন, বৈধ লাইন্সেসধারী ড্রাইভার এবং সঙ্গে আরো একজনকে যাওয়া আসার ক্ষেত্রে কোনো বাধা দেওয়া চলবে না। এক্ষেত্রে কোনো অনুমতিরও প্রয়োজন নেই।

•      যে সমস্ত ট্রাক, পণ্য আনতে যাচ্ছে বা পণ্য খালাস করে ফাঁকা গাড়ি নিয়ে ফিরছে, তাঁদের সঙ্গে প্রয়োজনীয় নথিপত্র থাকলে, কোনো মতেই সেই ট্রাককে আটকানো যাবে না।

•      ট্রাক ড্রাইভার এবং ক্লিনাররা যেন তাদের বাড়ি থেকে যেখানে ট্রাক রাখা আছে, সেখানে বাধাহীনভাবে যেতে আসতে পারেন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে তা নিশ্চিত করতে হবে।

•      রেল, বিমানবন্দর, সমুদ্রবন্দর এবং শুল্ককর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই তাদের কর্মী এবং ঠিকাকর্মীদের জন্য পাস ইস্যু করেছে, একে মান্যতা দিতে হবে।

•      যে সমস্ত সংস্থাকে তাদের পণ্য উৎপাদনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে, সেই সংস্থাগুলির কর্মীদের পাস দেওয়ার জন্য রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে ঐ সংস্থার প্রয়োজনীয় নথি থাকতে হবে। রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এই সমস্ত কর্মীদের এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে যাওয়ার আসার ক্ষেত্রে কোনো বাধা থাকবে না।

•      অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি যে সব শিল্পোদ্যোগী সংস্থা আটা, ডাল, রান্না তেল উৎপাদন করে, তাদের কাজের ক্ষেত্রে কোনো রকমের বাধা দেওয়া যাবে না।

•      গুদাম এবং কোল্ড স্টোরেজগুলিকে অবাধে কাজ করতে দিয়ে হবে। এই সমস্ত গুদাম বা কোল্ড স্টোরেজে ট্রাকের যাওয়া আসা যেন বাধাহীনভাবে হয় তা নিশ্চিত করতে হবে।

এর পাশাপাশি খেয়াল রাখতে হবে কোভিড – ১৯ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক, কোয়ারেন্টাইন, হটস্পট এলাকায় নজরদারী যে নীতি-নির্দেশিকা জারি করেছে, সেগুলি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। এছাড়া যান চলাচল এবং মানুষের যাওয়ার আসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে।

Related posts

এআরসিআই –এর বিজ্ঞানীরা চিকিৎসার জন্য অত্যাধুনিক জৈব মিশ্রিত ধাতব পদার্থ উদ্ভাবন করেছেন

E Zero Point

বর্ধমানের ৩ করোনা জয়ীদের স্বাস্থ্যকর্মীরা উপহার দিলেন

E Zero Point

আমাদপুর গ্রামে ইফতার সামগ্রী প্রদান

E Zero Point

মতামত দিন