20/06/2024 : 6:37 PM
অন্যান্য

করোনা আতঙ্কের মধ্যেও বিহারে অপহরণ, ধর্ষণ, নগ্ন ছবি পোষ্ট

বিশেষ সংবাদ, দ্বারভাঙ্গাঃ কিছু মানুষের নারী শরীরে প্রতি লোভ এতই বেশী যে তারা পরিবেশ পরিস্থিতি তাদের কাছে কিছুই নয়। তারা শুধু নিজেদের ঘৃণ্য কামনা পূরণের লক্ষ্যে সুযোগ খোঁজে এবং শিকার হয় শিশু থেকে কিশোরী, নাবালিকা থেকে বয়স্কা নারী।

বিহারের দ্বারভাঙায় এমনই এক অমানবিক নৃশংস ঘটনা ঘটেছে। ১৬ বছরের এক নাবালিকাকে প্রথমে অপহরণ, ধর্ষণ করে তার নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছে কিছু যুবক। গত ২৪শে এপ্রিল ধর্ষিতার নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর প্রকাশ্যে আসে ঘটনাটি। দ্বারভাঙ্গার ‘সাইবার সেনানি’ গ্রুপের কাছে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর বিহার পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক চারজনকে গ্রেফতার করেছে।

প্রসঙ্গগত উল্লেখ্য ঘৃণ্য ঘটনার শিকার দশম শ্রেণীর ছাত্রীর বাবা একজন পরীযায়ী শ্রমিক, কর্মসূত্রে আমদাবাদে লকডাউনের কারণে বাড়ি ফিরতে পারেননি।  আর সেই সুযোগ নিয়েছে উক্ত যুবকগুলি।

নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, মেয়েটি বাড়ি ফেরার সময় তাকে দুই যুবক অপহরণ করে একটি আমবাগানে নিয়ে যায়। সেখানে বাকি তিনজনকে মিলে, চলে পরপর ধর্ষণ এবং শারীরিক অত্যাচারের পর ধমকি দেওয়া হয় যে,  কাউকে জানালে চরম পরিণতির শিকার হবে। মেয়েটিও ভয়ে পরিবারের কাউকে কিছু জানায়নি কিন্তু অভিযুক্তদেরই একজন তার নগ্ন ছবি সোস্যাল নেটওয়ার্কে পোষ্ট করার পর প্রকাশ্যে আসে পুরো ঘটনা। ধর্ষকদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারা ও নাবালক যৌন নিগ্রহ রোধ আইনের (পকসো) নানা ধারায় মামলা রুজু করেছে বিহার পুলিশ।

প্রশ্ন এখন এটাই যে, যেখানে বিশ্বব্যাপী মানুষের সাথে ভারতও করোনা মোকাবিলায় লড়াই করছে, লকডাউনে মানুষ গৃহবন্দী হয়ে সচেতন থাকছেন সেখানে বর্তমানে কিছু যুব সমাজ আজ কোন পথে চলেছে? সরকার নিজেদের ক্ষমতা দখলের জন্য যেখানে করোনাকেও রাজনীতিতে টেনে এনেছেন, সেখানে যুগে যুগে চলে আসা নারী নির্যাতনের সুরহা কবে হবে? এই প্রশ্ন মানব সভ্যতার সঙ্কটময়কালে একবার কি ভেবে দেখা যায় না?

 

Related posts

গুসকরা পৌরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলরের ৫০ হাজার টাকা দান মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে

E Zero Point

করোনা মোকাবিলায় সজাগ থাকুন কিন্তু গুজব ছড়াবেন না – মেমারির মানুষ সচেতন হন

E Zero Point

“ঘরে থেকেই রক্তদান”, অভিনব উদ্যোগ নিল পল্লিমঙ্গল সমিতি

E Zero Point

মতামত দিন