30/01/2023 : 8:10 AM
আমার দেশকৃষি-পরিবেশ

করোনার পর মহারাষ্ট্রকে কাবু করতে পারে পঙ্গপালের ঝাঁক!

বিশেষ প্রতিবেদনঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঠেলায় যখন অস্থির গোটা দেশ, ঠিক সেই সময় গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো ঝাঁকে ঝাঁকে পঙ্গপালের হানা। একের পর এক কৃষিজমির সমস্ত ফসল খেয়ে নষ্ট করছে ওই মারাত্মক পতঙ্গটি। কোথা থেকে আসছে এই পঙ্গপালের ঝাঁক? দেশের কৃষিমন্ত্রক জানাচ্ছে, মূলত পাকিস্তান থেকেই ওই ফসল বিনষ্টকারী পঙ্গপালের আবির্ভাব হচ্ছে এদেশে। অনেকেই বলছেন, এতদিন সন্ত্রাসবাদের আঁতুরঘর বলে পরিচিত ছিল পাকিস্তান, আর এখন সেটি হয়ে উঠেছে পঙ্গপালের প্রজনন ক্ষেত্রও। অত্যন্ত দ্রুতগতিতে পাক-এলাকায় তাঁরা বংশবৃদ্ধি করছে এবং সীমান্ত অঞ্চল দিয়ে দল বেঁধে প্রবেশ করছে ভারতে। কৃষিবিভাগের উপ-নির্দেশক বি আর কাদওয়া জানিয়েছেন, পাকিস্তান সংলগ্ন অঞ্চলগুলি থেকেই সম্প্রতি রাজস্থানেও প্রবেশ করেছে পঙ্গপালের একটি নতুন দল।

পাকিস্তান সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের ভূখণ্ডে ঢুকে ইতিমধ্যে শস্যের দফারফা করেছে পঙ্গপাল। পশ্চিম, উত্তর ও মধ্য ভারত হয়ে আপাতত মহারাষ্ট্র অবধি ছড়িয়েছে এই পাল। ইতিমধ্যে কয়েক হাজার হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে রাজস্থান, হরিয়ানা, পাঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও গুজরাতের। গত ৩ দশকের মধ্যে সবচেয়ে বিপজ্জনক এই পঙ্গপাল আক্রমণ। এমনটাই দাবি করেছেন কৃষি বিজ্ঞানীরা। তবে চুপ করে বসে নেই কৃষি মন্ত্রক। দেশের ৩০৩টি এলাকায় প্রায় ৪৭ হাজার হেক্টর জমিতে এই পতঙ্গকে শায়েস্তা করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজস্থানের ২০টি জেলা, মধ্যপ্রদেশের ৯টি জেলা, গুজরাতের দুটি আর উত্তরপ্রদেশ এবং পাঞ্জাবের একটি করে জেলায় পতঙ্গ-প্রতিরোধী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে কৃষি মন্ত্রক। গত ৩ দশকের মধ্যে বিপজ্জনক এই হামলা। বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

Related posts

জম্মু-কাশ্মীর, গিলগিট-বাল্টিস্তান, মুজফ্ফরাবাদ এবং হিমাচল প্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় আগামীকাল ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

E Zero Point

বায়ুসেনা প্রধান কলেজ অফ এয়ার ওয়ারফেয়ারে

E Zero Point

মার্কিন রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর টেলিফোনে কথা

E Zero Point

মতামত দিন