28/11/2022 : 3:06 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাগুসকরাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমান

নতুন দিশার হাত ধরে ভাইঝির অভিনব জন্মদিন পালন শিক্ষক দম্পতির

জিরো পয়েন্ট নিউজ – পরাগ জ্যোতি ঘোষ, গুসকরা, ২৪ অগাস্ট ২০২০:


ভাইজি আত্মজার অভিনব জন্মদিন পালন করলেন মঙ্গলকোটের জাল পাড়ার বাসিন্দা শিক্ষক দম্পতি ‘নতুন দিশা’র হাত ধরে। গুসকরা স্টেশন চত্বরে গতকাল রাতে প্রায় ৬০ জন অসহায় মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিলেন শিক্ষক দম্পতি সঞ্জয় মন্ডল-অনিন্দিতা কুন্ডু । ভাই বিজয় মন্ডল ও ভ্রাতৃবধূ মনীষা মন্ডল তাদের মেয়ে আত্মজাকে নিয়ে কর্মসূত্রে থাকেন গুজরাটে। লকডাউনে ঘরে ফেরার কোনো সুযোগ নেই। এমত অবস্থায় জিরো পয়েন্টে প্রকাশিত নতুন দিশার প্রতি সপ্তাহের রবিবার রাত্রিবেলায় অসহায় মানুষদের মুখে অন্নদান এর খবর পান তারা। যোগাযোগ করেন নতুন দিশার কর্ণধার সুবীর রানার সাথে। সুযোগ হয় ভাইঝির জন্মদিন উপলক্ষে নতুন দিশায় অংশ গ্রহনে ।খুব খুশি সঞ্জয় অনিন্দিতা। আজ সন্ধ্যায় সপরিবারে তারা হাজির হন স্টেশন চত্বরে। সঙ্গে ছিলেন লাবনী ও বৌদি নবনীতা এবং শিক্ষক দম্পতির একমাত্র সন্তান আয়ুষ। রান্না করা ভাত, আলুবরবটি ভাজা, আলু পটলের তরকারি ,মুরগির মাংস ,চাটনি ও মিষ্টি নিয়ে তার দলবল নিয়ে স্টেশন চত্বরে চলে আসেন সুবির বাবু ।তাদের হাতে হাত লাগান পরিবারের লোকজন ।

প্রায় ৬০ জন খেটে খাওয়া মানুষের সাথে ভাইঝির জন্মদিন ভাগ করে নিতে পেরে ভীষণ খুশি শিক্ষক দম্পতি। তারা বলেন নতুন দিশার এই উদ্যোগ তারা কোনদিন ভুলতে পারবেন না ।ভাইজি আত্মজার দুই বছরের এই জন্মদিন সারা জীবন চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে । তাদের মুখে বারবার সুবির বাবুর নামও ঝরে পড়েছে। তারা বলেন এমন মানুষ চোখে মেলা দায়। লকডাউনে অনেক মানুষই হয়তো এক আধ দিন প্রতিকী দান বা অন্য দান করছেন ।কিন্তু এভাবে বছরের পর বছর প্রতি রবিবারে একটি সংস্থা কোন সাহায্যের প্রত্যাশা না করে নিরন্ন মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিচ্ছেন এটা ঈশ্বরের প্রতিরূপ। নতুন দিশার কর্ণধার সুবীর রানা বলেন তিনি ভীষণ খুশি তার নতুন দিশায় নুতন নুতন মানুষদের কাছে পেয়ে অপ্রত্যাশী এই মানুষটা যেন অন্য ধাতুতে তৈরি। তিনি বলেন মানুষ মন্দির, মসজিদ, গির্জায় যায় ।তাদের কাছে একটা অপশন তিনি খুলে রেখেছেন এই কর্মকাণ্ডে যোগ দেবার। কারণ তিনি বিশ্বাস করেন জীবে প্রেম করে যেই জন সেই জন সেবিছে ঈশ্বর। সারা জীবন আর্তের সেবার জন্য বলি প্রদত্ত এই মানুষটি এক নাস্তিক মানুষ। কিন্তু যত তাকে দেখা হয় মুগ্ধ হতে হয় ।হয়তো বা ঈশ্বরের এক জীবন্ত রূপ ধরা পড়ে মানবতার জ্বলন্ত মূর্তি রূপে ।বেঁচে থাক নতুন দিশা তার অপ্রত্যাশী দানের ঝুলি নিয়ে।

Related posts

হুগলি বর্ধমান জেলার বর্ডার সংলগ্ন এলাকায় পথ দুর্ঘটনায় আহত এক ব্যক্তি

E Zero Point

নবস্থায় তপশিলি সংলাপ

E Zero Point

ভাতার ব্লক হাসপাতালের স্বাস্থ্যপরিসেবা নিয়ে প্রশ্ন?

E Zero Point

মতামত দিন