03/02/2023 : 10:11 AM
অন্যান্য

একনজরে বিভিন্ন জেলার করোনা আপডেট

বিশেষ প্রতিবেদনঃ পূর্ব বর্ধমান জেলায় নতুন করে করোনা আক্রান্তের খবর নেই। করোনা সন্দেহে বর্ধমানের বামবটতলার বেসরকারি হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি রয়েছেন ৫৪জন। আজ নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ৮ জন। গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ১৭ জন। ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে রয়েছেন ৫ জন। অক্সিজেন চলছে ৬ জনের। ভেন্টিলেটরে আছেন ১ জন।
হাসপাতালের ফ্লু ক্লিনিকে চিকিৎসা করাতে আসা ৪ জনকে হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।
৩০ জনকে আজ হোম কোয়ারান্টাইনে পাঠানো হয়েছে।
ভিন রাজ্য থেকে ফিরে ২৮ দিনের নজরদারিতে রয়েছেন ৩১৫ জন। বিদেশ ও ভিন রাজ্য থেকে ফিরে ২৮ দিনের নজরদারির সময়সীমা উত্তীর্ণ করেছেন ৩৩,২৪৬জন।

পশ্চিম বর্ধমানে দুর্গাপুরে কোভিড হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩ জন। এর মধ্যে দুজন পূর্ব বর্ধমানের বাসিন্দা। ইতিমধ্যেই তিনজন সুস্থ হয়ে সেখান থেকে বাড়ি ফিরে গেছেন বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

এখন একনজরে দেখে নেওয়া যাক রাজ‍্যের অন্যান্য জেলার পরিস্থিতি।

উত্তর ২৪ পরগণা


এই জেলায় আজ পর্যন্ত মোট ১১৩ জনের করোনা পজেটিভ ধরা পড়েছে। জেলার ৩১ টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মোট ১১৭ জন রয়েছেন। এ পর্যন্ত নয়জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি বিধাননগর পৌরনিগম ছাড়াও দক্ষিণ দমদম, বরানগর, মধ্যমগ্রাম, কামারহাটি, ব্যারাকপুর ও ভাটপাড়া পৌর এলাকায়। আক্রান্ত এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে যাবতীয় সুরক্ষা মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
মুর্শিদাবাদ


বিদেশ ফেরত ২৫ জন জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের নজরদারিতে হোম কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন। কোয়ারান্টাইনে থাকার মেয়াদ পূর্ণ করেছেন ভিন দেশ ফেরত ৯৭৭ জন।
ভিন রাজ্য ফেরত ২৬৪৯ জন জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের নজরদারিতে হোম কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন। ভিন রাজ্য ফেরত ৪০ হাজার ৪১৯ জন হোম কোয়ারান্টাইনে থাকার মেয়াদ পূর্ণ করেছেন। কোয়ারান্টাইন কেন্দ্রে রয়েছেন ৩৩ জন। বহরমপুর আইসোলেসন ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন ১২ জন। কোভিড ১৯ পরীক্ষার জন্য লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২১২ জনের।জেলার বাইরে কলকাতায় চিকিৎসাধীন ১ জন করোনা পজিটিভ।
নদীয়া


এই জেলা থেকে নতুন করে ২৫ জনের স্যাম্পল কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। করোনা সন্দেহে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনকে জেলার বিভিন্ন আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করতে হয়েছে। বর্তমানে মোট ৪৫ জন জেলার বিভিন্ন আইসোলেশন ওয়ার্ডে রয়েছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার কোয়ারেন্টাইন সেন্টার গুলিতে নতুন করে ২ জনকে আনা হয়েছে। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টাইন সেন্টার গুলিতে ১৮১ জন রয়েছে। অন্যদিকে এর পর্যন্ত ১০৭৯ জনকে কোয়ারেন্টাইন থেকে বাড়ি ফেরত পাঠানো হয়েছে।
হুগলী


জেলার রিষড়া পুর এলাকায় এই প্রথম একজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আজ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় প্রতিরোধক ব্যবস্থা নিলো রিষড়া পুরসভার। উপসর্গ ধরা পড়া ব্যক্তি ও তার পরিবারের সমস্ত সদস্যদের শ্রীরামপুর ওয়ালস হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে। এই এই জেলায় ২৮-জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়লো।

কোচবিহার


জেলায় এখনো পর্যন্ত ৪২০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে যাদের মধ্যে ৩১০ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। আজ ১১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের রিপোর্ট এখনো এসে পৌঁছায়নি। কোচবিহার জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইন রয়েছেন ১৪২১ জন। সরকারি কোয়ারান্টিনে রয়েছেন ২০৯ জন।

পুরুলিয়া


এবার একসঙ্গে কুড়ি জনের লালারসের নমুনা পাঠানো হল পুরুলিয়া থেকে। এই জেলা এখনও পর্যন্ত গ্রীন জোনের মধ্যে রয়েছে। তবু উদ্বেগে রয়েছেন জেলার মানুষ। জেলা প্রশাসন থেকে জানা গেছে এখনও পর্যন্ত মোট ১১৫ জনের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে ৮৬ জনের রিপোর্ট এসে পৌঁছেছে। তারা সবাই নেগেটিভ। তবে এখনও রিপোর্ট পাওয়া যায়নি ২৯ জনের। এদিন আরও তিন ব্যাক্তিকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে ৩২৬ জনকে। অন্যদিকে সরকারী কোয়ারেন্টাইন থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৪ জনকে।
সূত্রঃ আকাশবাণী

Related posts

“আমরা না ভাইরাস তৈরি করেছি, না ইচ্ছাকৃতভাবে সেটা ছড়িয়েছি”: চিনা দূতাবাসের মুখপাত্র

E Zero Point

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য গলসিতে কংগ্রেসের অনশন

E Zero Point

সব দোকান-বাজার খোলা থাকবে, গুজব ছড়ালে কড়া ব্যবস্থা: মুখ্যমন্ত্রী

E Zero Point

মতামত দিন