03/02/2023 : 3:36 AM
অন্যান্য

পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসকের নির্দেশ ছাড়া কোন খাদান থেকে বালি তোলা যাবে না

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী প্রতি বছরই মে থেকে জুলাই মাস অর্থাৎ তিন মাস বালি তোলা বন্ধ থাকে প্রতি জেলায়, কিন্তু এবছর বালি তোলার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

এদিন বিএলআরও শিশির কুমার মজুমদার জানান, রাজ্যের নির্দেশ মোতাবেক আপাতত বালি তোলা হচ্ছে। অন্যদিকে জেলা শাসক বিজয় ভারতী জানান, রাজ্যের মুখ্য উপদেষ্টার চিঠি অনুযায়ী পূর্ব বর্ধমান জেলার দামোদর নদী ও ভাগীরথী নদী থেকে বালি তোলা হচ্ছে। লকডাউনের ফলে দুমাস বালি সরবরাহ না হওয়ায়, সরকারি কাজের ক্ষেত্রে যেমন বড় বড় বিল্ডিং, কনস্ট্রাকশন, সরাকারী রাস্তা-ঘাটের কাজ ইতিমধ্যে আটকে রয়েছে।
তিনি জানান যে ভারী বৃষ্টিপাত না হওয়া পর্যন্ত আপাতত বালি তোলার কাজ চলবে, তিনি আরও বলেন নদীতে জল বেড়ে গেলে তখন হয়তো বন্ধ থাকবে ঘাট।


আজ (মঙ্গলবার) বর্ধমান জেলা শাসকের কার্যালয়ে জেলাশাসক বিজয় ভারতী উপস্থিতিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অতিরিক্ত জেলা শাসক ভূমি ও ভূমি সংস্কার শশী ভূষণ চক্রবর্তী বলেন, প্রতিবছরের মতো বৃষ্টির আগেই বালির খাদান বন্ধ করা হবে। বেশকিছু খাদান মালিককে বালি মজুদ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই বিষয়ে তিনি আরো বলেন বালি রাখতে হবে এন.এইচ-২ থেকে সুরক্ষিত দূরত্বে। বিভিন্ন পঞ্চায়েতের নির্দেশে বেশ কিছু এলাকায় বালি মজুদ করা হচ্ছে। সে বিষয়ে নির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেল তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে । তিনি আরো বলেন জেলাশাসকের নির্দেশ ছাড়া কোন খাদান থেকে বালি তোলা যাবেনা। অথবা কোথাও কোনো বালি মজুদ করা চলবে না।


Related posts

গুসকরায় তৃণমূল নেত্রীর উদ্যোগে পানীয় জলের পাম্প মেরামত

E Zero Point

ছন্দের মোহনায় : লাল্টু সেখ

E Zero Point

বিধায়কের উপস্থিতিতে আউসগ্রাম ও গুসকরায় ত্রাণ বিলি

E Zero Point

মতামত দিন