02/10/2022 : 3:24 PM
BREAKING NEWS
আমার বাংলাদক্ষিণ বঙ্গপূর্ব বর্ধমানমেমারি

মেমারিতে ৫ বিজেপি প্রার্থী মনোনয়ন জমা করলেন না, কিন্তু কেন? নাম প্রত্যাহারের আসল কারণ কি?

জিরো পয়েন্ট নিউজ ডেস্ক, এম.কে হিমু, মেমারি,  ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২:


বর্তমানে ভারতের সর্ববৃহৎ দল। কেন্দ্রে তাদের সরকার। দেশের ২১টি রাজ্যে তাদের শাসন। ৭০টি বিধায়ক নিয়ে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টী। রাজ্যের পৌর নির্বাচনে বিভিন্ন পৌরসভায় প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভের মুখে। মেমারি পৌরসভাও সেক্ষেত্রে বাদ গেল না।

একদম শেষ মুহুর্তে বিজেপির প্রার্থী তালিকা প্রকাশ পেলেও ১৬টির মধ্যে ১টি ওয়ার্ডে প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি। কিন্তু আশ্বর্যের বিষয় হলো মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিনে মেমারি পৌরসভার ৫ জন মনোনীত প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিলেন না। ৪ নং ওয়ার্ড সৌমিত্র সামন্ত, ৬ নং ওয়ার্ড জিতেন্দ্র সাউ, ৯ নং ওয়ার্ড সৈকত মন্ডল, ১১ নং ওয়ার্ড সন্ধ্যা সাহা, ১৩ নং ওয়ার্ড শম্পা ক্ষেত্রপাল, ১৬ নং ওয়ার্ড সুজন সর্দার। এর মধ্যে ১৫ নং ওয়ার্ডে বিজেপি কোন প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করতেই পারেনি। বুধববার জেলাশাসক দপ্তরে ১০ জন বিজেপি প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন।

এদিকে মেমারি পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি প্রার্থী সৈকত মন্ডল দলের শীর্ষ ও স্থানীয় নেতৃত্বের দিকে ক্ষোভ প্রকাশ করে সাংবাদিক বৈঠক করেন মেমারি নতুন বাসষ্ট্যান্ডে। একইসঙ্গে দলের কোন কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন না বলেও জানান সৈকত মন্ডল। এছাড়াও তিনি অভিযোগ করেন বিধানসভা নির্বাচনে প্রচার বাবদ প্রাপ্ত অর্থের তছরুপ হয়েছে। যদিও তিনি শাসক দল কিংবা অন্য কোন দলে যুক্ত হবেন কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তা ধোঁয়াশা রাখেন।

মেমারি পৌরসভার বিজেপির নির্বাচনী কনভেনার অসিত চৌধুরী জিরো পয়েন্ট এর প্রতিনিধিকে বলেন, পৌর নির্বাচনের জন্য যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়েছিলো, তা মেমারি বিজেপি থেকে প্রস্তাবিত তালিকা থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। এক্ষেত্র তিনি ১ নং ওয়ার্ডে বর্তমানে স্মৃতিকণা বসুর জায়গায় সৌমিত্র সামন্তের প্রার্থী হওয়ার কথা ছিলো। স্মৃতিকণা বসুকে ১৪ নং ওয়ার্ডের প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল প্রস্তাবিত তালিকায়। জানা যায় দলের প্রতি এই ক্ষোভের কারণে অসিত চৌধুরী মেমারি পৌরসভার বিজেপির নির্বাচনী কনভেনার পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

স্মৃতিকণা বসুকে ১৪ নং ওয়ার্ডের প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল প্রস্তাবিত তালিকায় এ ব্যপারে জানতে চাওয়া হলে মেমারি পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী স্মৃতিকণা বসু জিরো পয়েন্ট এর প্রতিনিধিকে জানান দল যেখানে তাকে প্রার্থী করেছেন সেখানেই তিনি কাজ করবেন। এ ব্যপারে আর কোন মন্তব্য করবেন না। খুব শীঘ্রই প্রচারে নামবেন।

জেলা বিজেপি নেতা অভিজিৎ তা এব্যপারে কিছু মন্তব্য করতে না চাইলেও উনি জিরো পয়েন্ট প্রতিনিধিকে মেমারি পৌরসভার বিজেপির নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা বিজেপি নেতা মানিক রায়ের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।

এব্যপারে সৌমিত্র সামন্ত সংবাদ মাধ্যমকে বলেন যা বলার দলীয় উচ্চনেতাদের জানাবো এপ্রসঙ্গে কোন মন্তব্য করবো না।  জিরো পয়েন্ট প্রতিনিধিকে বিজেপি নেতা মানিক রায় জানান, প্রার্থী তালিকায় থাকা ৫ জন প্রার্থী ও প্রস্তাবক পৌঁছাতে না পারায় মনোনয়ন করা যায়নি। ৪ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী তালিকায় নাম থাকা সৌমিত্র সামন্তের পরিবর্তে আজিজুল রহমান বাবিন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বলে জানান।

স্বাভাবিক ভাবেই মেমারি পৌরসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে। মেমারি পৌরনির্বাচনে বিজেপি কি পিছিয়ে পড়লো? বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে বিজেপি ভালো ফল করতে পারতো বলে মত প্রকাশ করছিল রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা কিন্তু মেমারি বিজেপি নেতাদের মধ্যে মতপার্থক্য প্রকট হয়ে উঠলো।এর ফলে একদিকে যেমন শাসক দল তৃণমূলের ১৬-০ করার যে দাবী তা যেমন বাস্তবতা পেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে ঠিক তেমনই সিপিআইএম প্রার্থীরাও যে ভালোমতো ভোট দখল করবে সেটা বলা যেতেই পারে।

 

Related posts

মেমারিতে রেল ফুটওভার ব্রিজের স্লাব ভেঙে পরলো

E Zero Point

বর্ধমানে “আজাদী কী অমৃত মহোৎসব”

E Zero Point

পুজোর আগেই চলবে দীঘা ও পুরী ট্রেন

E Zero Point

মতামত দিন