01/02/2023 : 1:12 AM
আমার বাংলাপূর্ব বর্ধমানমেমারি

জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে মুরগির বাচ্ছা বিতরণ

জিরো পয়েন্ট নিউজ – সুজিত দত্ত, বর্ধমান, ১ ডিসেম্বর ২০২২:


ডিম ও মাংসের চাহিদা পুরনের পাশাপাশি গ্রামীন অর্থনীতিকে কিছুটা হলেও চাঙ্গা করতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের পক্ষ থেকে রাজ্যের গ্রামীন এলাকায় পশুপালনের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। সেইমত বুধবার জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির প্রানী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের পক্ষ থেকে চকদিঘি ও বেরুগ্রাম অঞ্চলের ২৭০ জনকে ১০ টি করে অর্থাৎ ২ হাজার ৭০০ জনকে মুরগির বাচ্ছা প্রদান করা হয়। ওই অঞ্চলের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা ছাড়াও এলাকার দরিদ্র ও পশুপালনের মাধ্যমে স্বনির্ভর হতে ইচ্ছুক মহিলাদের মুরগির বাচ্ছা প্রদান করা হয়। ওই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান, প্রাণী দপ্তরের কর্মধক্ষ্য সুনীল ধারা সহ অন্যান্যরা।


জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান জানিয়েছেন, ডিম ও মাংসের চাহিদার যোগান দিয়ে গ্রামীন অর্থনীতিকে কিছুটা চাঙ্গা করার পাশাপাশি গ্রামাঞ্চলের মহিলাদের আর্থিক স্বনির্ভরতা গড়ার লক্ষ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বদা সচেষ্ট। তাই রাজ্যের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের মানুষদের পশুপালনের মাধ্যমে স্বনির্ভর করে তোলার জন্য রাজ্য সরকার বিভিন্ন সময়ে হাঁস, মুরগি, গরু, ছাগল ইত্যাদি প্রদান করে। এদিন চকদিঘি ও বেরুগ্রাম অঞ্চলের মহিলাদের হাতে মুরগির বাচ্ছা তুলে দেওয়া হলেও জামালপুর ব্লকের ১৩ টি অঞ্চলেই পর্যায়ক্রমে এই মুরগীর বাচ্ছা প্রদান করা হবে। এর আগেও পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে কখনও হাঁস ও মুরগির বাচ্ছা কখনও গরু ও ছাগল প্রদানও করা হয়েছে এবং আগামি দিনেও এই কর্মসূচি চলবে বলে জানিয়েছেন মেহমুদ বাবু। এদিন নিজ হাতে মহিলাদের হাতে মুরগির বাচ্ছা তুলে দেওয়ার সাথে সাথে সেগুলিকে ভালভাবে লালন পালন করে কিভাবে ডিম ও মাংস উৎপাদনের মাধ্যমে আর্থিকভাবে কিছুটা হলেও স্বনির্ভর হওয়া যায় তা বুঝিয়ে দেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি।

Related posts

পান্ডুয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের বিক্ষোভ কর্মসূচী

E Zero Point

শোলে সিনেমার বীরুর দেখা মিললো নাদনঘাটে

E Zero Point

স্বামীর অবৈধ সম্পর্কঃ প্রতিবাদী স্ত্রীকে গলাটিপে খুন

E Zero Point

মতামত দিন