02/02/2023 : 7:45 AM
অন্যান্য

মাজরা পোকা চেনার উপায় ও প্রতিকার

মাজরা পোকা

ধান ক্ষেতে যে হলুদ,ধূসর,সাদা,কালো মাথা, গোলাপী পুঁতি বা মথ উড়ে বেড়ায় তা হল মাজরা পোকা।আর গ্রীষ্মকালে এই পোকার আক্রমন বেশি হয়।মাজরা পোকার পূর্নাঙ্গ দশা সরাসরি ধান গাছের ক্ষতি করে না।স্ত্রী মাজরা পোকার দুটি ডানার ওপর কালো বিন্দু ওপর থেকে দেখা যায়। স্ত্রী মথ পাতার ডগার দিকে উভয় পৃষ্ঠে গুচ্ছাকারে ডিম পাড়ে। এই ডিমগুলি প্রথমে চকচকে, ফোটার আগে কালো হয়ে যায়। ডিম ফোঁটার পর কালো মাথা ছোট সাদাটে হলুদ লেদা লালার মাধ্যমে সুতোর সাহায্যে গাছের গোড়ার কাছে চলে যায়। জলের লেভেল থেকে ২-৪ ইঞ্চি ওপরে ধানগাছের খোলা ফুটো করে ঢুকে যায়। খোলা ফুটো করে কান্ড লেদা খেতে থাকে।

চেনার উপায়ঃ-

গায়ে ছোটো ছোটো রোম থাকে এবং এদের মাথা বাদামি রঙের।স্ত্রী পোকা হলুদ রঙের ও সামনের ডানার মাঝখানে কালো ফোঁটা দাগ থাকে।পুরুষ পোকা হালকা বাদামি এবং সামনের ডানার প্রান্তভাগে অসংখ্য ছোটো ছোটো দাগ থাকে।পূর্নাঙ্গ মাজরা পোকা বা মথ দিনের বেলা ধান গাছে দেখতে পাওয়া যায়।

ক্ষতির লক্ষণঃ-

পূর্ণাঙ্গ পোকা পাতার উপরে ডগার দিকে একসঙ্গে অনেক ডিম পাড়ে।ডিমগুলি নরম ও লোম দিয়ে ঢাকা থাকে। ডিম থেকে কীড়া বার হয়ে গাছের কান্ড বা পাশকাঠির গোড়ার দিকে ভিতরে ঢুকে গিয়ে নরম অংশ খেয়ে থাকে।পাশকাঠি ছাড়ার সময় এই পোকার আক্রমন হলে মরা পাশকাঠি বা ডেডহার্ট হয় এবং শীষ বের হওয়ার সময় আক্রমনে মরা শীষ বা হোয়াইট হেড হয়ে হয়।মরা পাশকাঠি বা মরা শীষ টানলে তা সহজেই উঠে আসে। সারা বছরে মোট চারবার ( ২২ ফেব্রুয়ারী, ৭ এপ্রিল, ২২ মে ও ২ অক্টোবর ) এই পোকার আক্রমন সর্বাধিক লক্ষ্য করা যায়। এদের আক্রমনে ফলন কমে যেতে পারে।

প্রতিকার ব্যবস্থা

পরিচর্যাঃ-

সহনশীল জাত যেমন, আই আর-৩৬, শস্যশ্রী, সবিতা, পঙ্কজ ইত্যাদির চাষ করলে এই পোকার উপদ্রব থেকে রক্ষা পাওয়া যেতে পারে ।আক্রান্ত গাছগুলিকে গোড়াসহ তুলে পুড়িয়ে ফেলা উচিত।
পাতার উপর ডিমের গুচ্ছ দেখলে ডিম সহ পাতা নষ্ট করে ফেলতে হবে।

যান্ত্রিকঃ-

আলোকফাঁদ পেতে বা জমির আশেপাশে আগুন জ্বালিয়ে এই পোকার মথ মারতে হবে।প্রতি একর জমিতে ১- ২ টি আলোক ফাঁদ ব্যবহার করতে হবে।

জৈবিকঃ-

মাকড়সা, লেডীবিটল, লম্বাশুঁড় ঘাষফড়িং, উরছুঙ্গা, মিরিডবাগ, ওয়াটারবাগ ইতাদি বন্ধুপোকার সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।রোয়ার ৩০, ৩৭, ৪৪ এবং ৫১ দিন পর ট্রাইকোগ্রামা জাপোনিকাম, ট্রাইকোগ্রামা চিলোনিস ছাড়া যেতে পারে।

রাসায়নিকঃ-

ধান রোপনের পূর্বে মাটিতে ফোরেট ১০% জি. @ ৪ কেজি /একর বা কারটাপ হাইড্রোক্লোরাইড ৪ % জি @ ১০ কেজি /একর প্রয়োগ করার সুপারিশ করা হয়।

স্প্রে করতে পারেন –

অ্যাসিফেট ৭৫% এস. পি. @ ০.৭৫ গ্রাম /লিটার বা
ট্রায়জোফস ৪০ % ই. সি. @ ১ মিলি /লিটার
বা
ক্লোরপাইরিফস ২০% ই. সি. @ ২.৫ মিলি /লিটার বা
কারটাপ হাইড্রোক্লোরাইড ৫০ % এস. পি @ ১ মিলি /লিটার
বা
থায়ামেথাক্সম ২৫ % ডবলু. জি @ ১ গ্রাম/৩ লিটার বা
ল্যাম্বডা সাইহ্যালোথ্রিন ৫ % ই. সি. @ ১ মিলি /৩ লিটার জলে গুলে স্প্রে করতে হবে।

★★★NRRI recommended insecticides for stem borer
Apply –
chlorantraniliprole 0.4 G @ 10kg/ ha
or imidacloprid 0.3 G @15kg/ha
or cartap 4 G @ 25 kg/ha or
fipronil 0.3 G @ 25 kg/ha.

Spray –
chlorantraniliprole18.5 SC @ 150ml/ ha
or flubendiamide 20 WG @125g/ha
or thiacloprid 21.7 SC @ 500ml/ha
or cartap 50 WP @ 1000 g/ha
or chlorpyriphos 20 EC @ 1250 ml/ha
or quin


তথ্যপ্রদান – সুদীপ্ত ভট্টাচার্য, মেমারি, পূর্ব বর্ধমান

Related posts

পূর্ব বর্ধমানের শ্মশানের প্রতীক্ষালয় থেকে উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ

E Zero Point

গুসকরা পৌর ওয়ার্ডে বিধায়কের খাদ্যসামগ্রী বিলি

E Zero Point

বৈশাখী উৎসব কমিটির মানবিক উদ্যোগ

E Zero Point

মতামত দিন