01/12/2022 : 6:41 PM
BREAKING NEWS
অন্যান্য

বীরভূমের কবি, ভাদু গান,‌‌ বাউল গানের গীতিকার- বেঁচে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে

জিরো পয়েন্ট নিউজ, পার্থসখা অধিকারী,  ২২ এপ্রিল ২০২২:


প্রয়াত হলেন বীরভূম জেলার জনপ্রিয় কবি, ছড়াকার, গীতিকার তথা মানব প্রেমিক মহম্মদ ওয়ারেস। চাকরীর সুবাদে তাঁর একহাতে ছিল যেমন বন্দুক আবার সৃষ্টির নেশায় সেই হাতেই ঝলসে উঠতো পৃথিবীর সেরা অস্ত্র কলম। বীরভূম জেলার লাভপুর ব্লকের কাজীপাড়া গ্রাম মহম্মদ ওয়ারেসের জন্মভূমি । পেশায় রাজ্য পুলিশের হোমগার্ড পদে কর্মরত ছিলেন । একুশ বছর চাকরি জীবন কাটিয়ে শারীরিক অসুস্থতা জনিত কারণে চাকরি থেকে ২০১৮ সালে স্বেচ্ছায় অবসর নেন । স্কুল জীবন থেকেই লেখালেখির প্রতি তাঁর অদম্য ইচ্ছে শক্তি জন্মে উঠে । লিখেছেন দেশ, বিদেশে অজস্র পত্র পত্রিকায়, অল‌ ইন্ডিয়া রেডিও-আকাশবাণীর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে চিঠিপত্র লিখেছেন মহম্মদ ওয়ারেস । সাহিত্যচর্চার সুবাদে পেয়েছেন বহু পুরস্কার, সম্মাননা । লিখেছেন কবিতা, ছড়া, গল্প, নাটক, উপন্যাস, লোকগান । সাহিত্যে ছিলো তাঁর স্বচ্ছন্দ বিচরণ । ভাদু গান,‌‌ বাউল গানের গীতিকার হিসেবে সুপরিচিতি ছিলো জনাব ওয়ারেসের । ইতিপূর্বেই প্রকাশ করেগেছেন ভাদু গান, বাউল গানের স্বচরিত গ্রন্থ । পেশার চাপ সামলেও লিখে গেছেন চল্লিশটির অধিক গ্রন্থ ।

কবি মহম্মদ ওয়ারেস গত দু’মাস যাবৎ দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভুগছিলেন । অবশেষে ২ এপ্রিল, শনিবার, দুপুর ১২:১০ মিনিটে নিজ বাসভবনে ৫৫ বছর বয়সে অকাল প্রয়াণ ঘটে কবি ওয়ারেসের । সেদিনই মাগরিবের নামাজ পর কবির জানাজার নামাজ পড়ান তাঁর কনিষ্ঠ পুত্র মহম্মদ আব্দুর রহমান এবং তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় । শোকস্তব্ধ সাধারণ মানুষ সহ সাহিত্যের আত্মজনেরা । মৃত্যুর সময় রেখে গেছেন স্ত্রী, চার পুত্র ও একমাত্র কন্যাকে। পাশাপাশি রেখে গেছেন তাঁর সৃষ্ট অজুত সাহিত্য সম্ভার । তাঁর জ্যেষ্ঠ পুত্র মুন্সি দরুদ জানান — “বাবার রচিত সাহিত্য প্রকাশের ধারা অব্যাহত থাকবে । পত্র, পত্রিকাতে প্রকাশ হবে তাঁর লেখা কবিতা, ছড়া এবং অন্যান্য রচনা । আমরা চার ভাই মিলেই বাবার রচিত সাহিত্যের পাণ্ডুলিপি বই আকারে প্রকাশ করবো । তিনি বেঁচে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে “।

 

Related posts

৩১ মে পর্যন্ত আদালত অচল থাকার নির্দেশিকা

E Zero Point

“করোনা”য় কোরোনা ভয় কবি -কল‍্যানী চক্রবর্তী | আবৃত্তি – ব্রততী ঘোষ আলি

E Zero Point

কুইজের খোঁজ খবর ও কুইজ প্রতিযোগিতা-১১

E Zero Point

মতামত দিন